কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৪ আশ্বিন, ১৪২৭ | ১১ সফর, ১৪৪২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জুয়াইল্লা গোষ্ঠী ও সাদুল্লাহ গোষ্ঠীর সংঘর্ষ, আহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ফেসবুক স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে ৬ জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ। শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে সামসুল ইসলাম (৩৮), সোহেল মিয়া (২৫), মোবারক মিয়া (৩২), সাদেক মিয়া ও তফাজ্জল মিয়া নাম জানা গেলেও অপর আরেকজনের নাম জানা যায়নি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে আহতরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় সামসুল ইসলামকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানায়, সাদেকপুর গ্রামের জুয়াইল্লা গোষ্ঠী ও সাদুল্লাহ গোষ্ঠীর (চেয়ারম্যান গোষ্ঠী) মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। কিছুদিন আগে জুয়াইল্লা গোষ্ঠীর নজুর বাড়ির ফরিদ মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন সাদুল্লাহ গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান সহ কয়েক জনের নামে গালাগাল করে ফেসবুকে পোস্ট করে। এই ঘটনা জানাজানি হলে শনিবার দুপুরে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সামনে জাকিরের সাথে সাদুল্লাহ গোষ্ঠীর লোকজনের কথা কাটাকাটি হয়। পরে এরই জের ধরে দুই গোষ্ঠীর লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সাদেকপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ কে এম আব্দুল হাই বলেন, আমাদের গোষ্ঠীর কেউ হামলা করেনি। জুয়াইল্লা গোষ্ঠীর লোকজন আমার সামনে সামসুল ইসলাম, সাদেক মিয়া ও তফাজ্জল মিয়ার উপর হামলা করে। এ ব্যাপারে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নিব। সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল হক জানান, এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

আরও পড়ুন