কুমিল্লা
শুক্রবার,৪ ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | ১৮ রবিউস-সানি, ১৪৪২

রাশিয়া বিশ্বকাপ নিয়ে কুবি শিক্ষার্থীদের ভাবনা

বিশ্বকাপ ফুটবল বরাবরই এক বিশ্বযজ্ঞের নাম। আজ রাতেই মস্কোর লুজনিকি স্টেডিয়ামে স্বাগতিক রাশিয়া ও সৌদি আরবের খেলা দিয়ে পর্দা উঠতে যাচ্ছে ২১তম বিশ্বকাপ ফুটবলের। এ বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে কত জনের কতই না ভাবনা। সবাই যুক্তি-তর্কে এগিয়ে রাখছে নিজ নিজ পছন্দের দলকে। তাই বিশ্বকাপ নিয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিকসহ বিভিন্ন সংগঠনগুলোর নেতৃত্বস্থানীয় ব্যক্তিদের ভাবনাগুলো তুলে ধরা হল।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ সমর্থন করছেন আর্জেন্টিনা ফুটবল দলকে। তাই তিনি প্রত্যাশা করছেন তার প্রিয় দলই এবারের বিশ্বকাপ ট্রফি জিতুক।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মাজেদ সমর্থন করছেন ব্রাজিল ফুটবল দলকে। ভালোবাসার দলকে যুক্তিতে এগিয়ে রাখছেন সবার উপরে। ব্রাজিলের হাতেই উঠুক এবারের বিশ্বকাপ ট্রফি সেই প্রত্যাশাই তার।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (কুবিসাস) সভাপতি মতিউর রহমান সমর্থন করছেন আর্জেন্টিনা ফুটবল দলকে। তিনি বলেন, ‘যে দলে মেসির মতো এক নান্দনিক ফুটবলার রয়েছে সে দলকেই সমর্থন জানাবো। এর আগে ম্যারাডোনার খেলার নৈপুণ্যের জন্যই আর্জেন্টিনা দলকে সমর্থন করা শুরু করি। আশা থাকবে প্রিয় দলই বিশ্বকাপ জিতুক।’

সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম সমর্থন করছেন ব্রাজিল ফুটবল দলকে।

তিনি জানান, ‘খেলাধুলা সব সময়ই আমার পছন্দের। তার মধ্যে ফুটবল খেলতে এবং খেলা দেখতে আমি বেশি পছন্দ করি। ছোটবেলা থেকেই ফুটবল দল হিসেবে ব্রাজিল ফুটবল টিমকে পছন্দ করি তাদের খেলার নৈপুণ্যতা ও শৃঙ্খলার জন্য। বিশ্বকাপের সৌন্দর্যই হচ্ছে ব্রাজিল। এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপ ট্রফি ব্রাজিলের হাতেই উঠুক সেই প্রত্যাশাই করছি।

বিএনসিসি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্লাটুনের সিইউও সোহান শেখ বলেন, ‘রাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮, ব্রাজিল টিমের জন্য রইল শুভ কামনা। আশা করি গত কয়েক বিশ্বকাপের শিরোপা খরা এবারের বিশ্বকাপে কাটিয়ে উঠবে।এই টিমকে নিয়ে শিরোপার স্বপ্ন যে কেউ দেখতেই পারে কারন এই টিমে আছে দক্ষ সিলভা, মার্সলো, নেইমার জেসুস কোটিনহো। ফুটবল খেলা বোঝার পর থেকে ব্রাজিল টিমকে ই পছন্দ সময় টা ২০০১/০২। তখন রোনালদো ,কাকা, রোনালদিনহো এদের খেলা ভাল লাগতো।’

প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি মাজহারুল ইসলাম হানিফ বলেন, টিম ব্রাজিলের প্রতি শুভেচ্ছা রইল। আশা করি, ছন্দ ও গতিময় ফুটবল খেলে হেক্সা মিশন শেষ করবে নেইমার এন্ড কোং। তবে, মেসি শিরোপা জিতলে মন্দ হবে না।

কুমিল্লা ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং সোসাইটিরর সভাপতি আদনান কবির সৈকত সমর্থন করছেন আর্জেন্টিনা ফুটবল দলকে। তাই তিনি আর্জেন্টিনাকেই এগিয়ে রাখছেন সবার আগে।

ডিবেটিং সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক সানী রাজিব জানান, ফুটবল বিশ্বে আর্জেন্টিনা এক নান্দনিকতার উদাহরণ। যারা শুধু কাপের হিসেব করে না বরং শৈল্পিক ফুটবলের মাধ্যমে কোটি সমর্থকদের মাঝে ফুটবল আকর্ষণ আরো বাড়িয়ে তোলে। শুভকামনা মেসি, শুভ কামনা আর্জেন্টিনা।

থিয়েটার কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি মেহেদী হাসান বলেন, ব্রাজিল.. ভালোবাসাটা শুরু কোথায় বা শেষ কোথায় কোনোটাই ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। তবে কিছুটা বোকার মতো প্রকাশ করা যায়। পেলের বায়ো নিয়ে মুভি ‘দ্যা বার্থ অফ লিজেন্ড-পেলে’ দেখে তার ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে যাই। কতটা এগ্রেসিভ আর অদম্য হলে ফুটবলের রাজা হওয়া যায়, তা কালো মানিককে দেখে শিখেছি। বর্তমান তিতের স্কোয়াড নিয়ে তেমন প্রবলেম নেই। কথা শেষ। সিম্পলের মধ্যে গর্জিয়াস কথা, হেক্সা ইনশায়াল্লাহ।

থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক হরিদাস চক্রবর্তী পংকজ বলেন, যদিও আমি একজন আর্জেন্টিনা সাপোর্টার, কিন্তু বিশ্বকাপে নিজ দেশের অনুপস্থিতি থাকায় আমার মধ্যে এত বেশি উন্মাদনা বা উত্তেজনা কাজ করে না খুব একটা এই সময়। আমাদের দেশে ফুটবল নিয়ে সবার যেহেতু এত্ত আবেগ, ভালোবাসা আর পাগলামি, তাহলে কেন একটা ভালো টিম হয় না দেশে প্রশ্ন রইল সবার কাছে?

আমার এই বিশ্বকাপে একটাই প্রার্থনা থাকবে যেন আমাদের দেশের ফুটবল অনেক এগিয়ে যায় এবং বিশ্বকাপে অংশগ্রহন করতে পারে। এই বিশ্বকাপে মেসি, নেইমার, রোনালদো, পগবা, ওজিল, সালাহদের জন্যে শুভকামনা রইল।

প্রতিবর্তনের সভাপতি ওয়াসী মজুমদার বলেন, স্পেন টিমকে সাপোর্ট করি। স্পেনের জন্য শুভেচ্ছা ও শুভকামনা। প্রতিবর্তনের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন সমর্থন করছেন আর্জেন্টিনাকে।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সায়েন্স ক্লাবেরর সভাপতি ওবায়দুল হক অবি জানান, ছোটবেলায় নীল সাদা জার্সিটা ভাল লাগত শুধু কারণ তখন খেলা তেমন বুঝতাম না,ধীরে ধীরে খেলা ভাল লাগা শুরু হয় তখন দলে মেসি,ডি মারিয়া, এগুয়েরোদের খেলা ভালো লাগে আর সেখান থেকেই আর্জেন্টিনা সাপোর্ট করি।

সায়েন্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কাওসার হামিদ জীবন বলেন, আমি শিল্পচর্চা করি। তাই ফুটবলের জগতে শিল্পকেন্দ্রিক সুশৃঙ্খল দল ‘আর্জেন্টিনা ফুটবল টিম’কে সাপোর্ট করি। আমি মনে করি আর্জেন্টিনা ছাড়া ফুটবল বিশ্বকাপ মূল্যহীন। আইটি সোসাইটির সভাপতি সৈয়দ মাখদুম উল্লাহ সমর্থন করছেন ব্রাজিল ফুটবল দলকে।

আইটি সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ফাহমিদ হাসান অনিক বলেন, অনেকেই অনেক যুক্তি দিবেন নিজের দলকে সাপোর্ট করার কারণ হিসেবে। আমার মনে হয় পুরো ব্যাপারটাই ভালোবাসার ব্যাপার। তর্কের খাতিরেই যুক্তি দেখানো হয় এবং ব্যাপারটা উপভোগ্যও। ছোটবেলা থেকেই আর্জেন্টিনা সাপোর্ট করি, মেসির জন্য সেটা আরো বেশি করে করা হচ্ছে ইদানীং। শুভকামনা প্রিয় দলকে।

প্ল্যাটফর্মের সভাপতি আবির ইশফাক জানান, আমি আর্জেন্টিনার সাপোর্টার। লাস্টটাইম একটুর জন্য হয় নাই। এইবার আশা রাখি। বাকিটা উপর ওয়ালা জানেন।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ফটোগ্রাফিক সোসাইটির সভাপতি আরাফাত তারিফ বলেন, ফুটবলের প্রতি ভালবাসা অনেক আগে থেকে আর ইউরোপীয় ফূটবলের একজন ভক্ত হিসেবে আমার প্রথম পছন্দ জার্মানি। আমি মনে করি জার্মান ফুটবল একটি আভিজাত্যের নাম। একজন ফুটবল প্রেমী মানুষ হিসেবে আমি জার্মানির একজন সাপোর্টার।

ফটোগ্রাফিক সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক রুদ্র সাহা জিৎ বলেন, ফুটবল খেলাটা বুঝতে শিখি ২০০২ সালে, তখন থেকেই সাদা রঙ এর জার্সি পড়া দলটার প্রতি অনেক মায়া অনেক টান। ২০০২ সালে হলো না, ২০০৬ সালে হলো না, ২০১০ সালেও হলো না কিন্তু অপেক্ষার সমাপ্তি হলো ২০১৪ সালে।

অনুপ্রাস কন্ঠ চর্চা কেন্দ্র, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি আনোয়ার হোসেন পলাশ সমর্থন করছেন ব্রাজিল ফুটবল টিমকে। এছাড়াও কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সকল শিক্ষার্থীরাই কোন না কোন ফুটবল দলকে সমর্থন দিচ্ছে। তাছাড়া শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলের মধ্যেই ফুটবল বিশ্বকাপের আমেজ কাজ করছে। সবাই তাদের নিজ নিজ পছন্দের ফুটবল দলকে এগিয়ে রাখছে সবার আগে।

(নতুন কুমিল্লা/জেপি/জেআই/জুন ১৪, ২০১৮)

আরও পড়ুন