কুমিল্লা
রবিবার,৯ মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২৬ বৈশাখ, ১৪২৮ | ২৬ রমজান, ১৪৪২

স্বার্থলোভী দ্বিধাগ্রস্ত জাতিকে পরাস্ত করতে বেশি কিছুর প্রয়োজন নেই : আসিফ আকবর

কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর তাঁর ফেসবুকে লিখেছেন, নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে যখন গ্রেফতার করে টেনে হিচঁড়ে নিয়ে যাওয়া হয়, তখন অসংখ্য মানুষ নিরবে সেই দৃশ্য উপভোগ করেছিলো। শুধু তাই নয়, পিঠে ছুরিকাঘাত করার পূর্বে নবাবকে কাটাওয়ালা সিংহাসন ও ছেড়া জুতা দিয়ে যখন অপমান করা হচ্ছিলো, তখন শত শত মানুষ সেই কৌতুকে ব্যাপক বিনোদিত হয়েছিলো! এই জাতি দুইশো বছরের গোলামী সাদরে গ্রহণ করেছিলো এভাবেই।

লর্ড ক্লাইভ ব্যক্তিগত ডায়েরীতে লিখেছিল, নবাব কে ধরে অপমান করতে করতে যখন নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তখন দাঁড়িয়ে থেকে যারা এসব প্রত্যক্ষ করেছিল তারা যদি একটি করেও ঢিল ছুড়তো তবে ক্লাইভ কে করুন পরাজয় বরণ করতে হতো। প্রায় ১০ হাজার অশ্বারোহী,

৩০ হাজার পদাতিক এবং অসংখ্য কামান-গোলাবারুদসহ বিশাল সুসজ্জিত সৈন্যবাহিনী নিয়েই পলাশীর ময়দানে এসেছিলেন নবাব সিরাজউদ্দৌলা। কিন্তু তার বিপরীতে রবার্ট ক্লাইভের সৈন্যসংখ্যা ছিলো মাত্র ৩ হাজার, যার মধ্যে ৯শ জনই ছিলো হাতে পায়ে ধরে নিয়ে আসা ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর শৌখিন অফিসিয়াল সদস্য। যাদের অধিকাংশেরই তলোয়ার ধরার মতো সুপ্রশিক্ষণ ছিলো না,

কোন দিন যুদ্ধ করেনি। এতো কিছু জেনেও রবার্ট ক্লাইভ যুদ্ধে নেমেছিলো এবং জিতবে জেনেই নেমেছিলো। কারণ রবার্ট ক্লাইভ খুব ভালো করেই বুঝেছিলেন একটি হীনমন্য ব্যক্তিস্বার্থলোভী দ্বিধাগ্রস্ত জাতিকে পরাস্ত করতে খুব বেশি কিছুর প্রয়োজন নেই।

(নতুন কুমিল্লা/জেপি/এমইইউ/রবিবার, জুন ২৪, ২০১৮)

আরও পড়ুন