কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২০ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
৪ কার্তিক, ১৪২৭ | ২ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২

কুমিল্লায় চাহিদার তুলনায় দ্বিগুণ মাছ উৎপাদন

কুমিল্লা জেলায় এ বছর মাছের উৎপাদন হয়েছে ২ লাখ ১০ হাজার ৬শ’ ৪২ মেট্রিক টন। জেলার মোট চাহিদা ৯৯ হাজার ৫শ’ মেট্টিক টন। চাহিদার তুলনায় ১ লাখ ১১ হাজার ১শ’ ৪২ টন মাছ বেশি উৎপাদন হয়েছে।যা চাহিদার তুলনায় দ্বিগুণের চেয়েও বেশি।জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুল কুদ্দুস আখন্দ নতুন কুমিল্লা তথ্যটি নিশ্চিত করেছে।

মৎস্য অধিদপ্তর কুমিল্লা অফিস সূত্র মতে, কুমিল্লা জেলায় মোট পুকুরের সংখ্যা ৮৪ হাজার ৪শ’ ২৪টি, যার আয়তন ২২ হাজার ৪শ’ ৬৪ হেক্টর। নদী রয়েছে ১৩টি, যার আয়তন ৪ হাজার ৮শ’ ৩২ হেক্টর। বিল ও প্লাবনভূমি রয়েছে ২শ’ ৪৫টি, যার আয়তন ২২ হাজার ৪শ’ ৬২ হেক্টর। কুমিল্লায় মোট ৪৯ হাজার ৭শ’ ৫৮ হেক্টর পুকুর, নদী ও জলাভূমিতে মাছ উৎপাদন করা হয়।

কুমিল্লায় মোট বেসরকারি হ্যাচারীর সংখ্যা ৭৮টি। মোট রেনু উৎপাদনের পরিমাণ ১ লাখ ৯ হাজার ৬২৬ কেজি। মোট মাছের পোনা উৎপাদন ২৯৪৫.৫১ লক্ষ। মৎস্য খাদ্য কারখানা ১৬টি ও মোট মৎস্য খাদ্য উৎপাদন ১ লাখ ৩ হাজার ৪৯১ মেট্টিক টন।

জানা যায়, বাংলাদেশে মাছের চাহিদা ৪০ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন। মাছের উৎপাদন ৪১ লাখ ৩৪ হাজার মেট্টিক টন। উদ্বৃত্ত মাছের উৎপাদন ৮৪ হাজার মেট্টিক টন।চীন ও ভারতের পরই রয়েছে বাংলাদেশের অবস্থান। চাষের মাছে বাংলাদেশ বিশ্বে পঞ্চম। প্রাকৃতিক ও চাষের মাছ মিলিয়ে বাংলাদেশ চতুর্থ। বিশ্বের প্রাকৃতিক উৎসের মাছের ৯০% অপরিণত অবস্থায় ধরা পড়েছে। গত ২ বছরে বিশ্বে এ ধরনের মাছের উৎপাদন ২০ লাখ টন করেছে, বাংলাদেশে তা ৩% বেড়েছে।

(নতুন কুমিল্লা/জেপি/এইচএম/২৫ জুলাই ২০১৮)

আরও পড়ুন