কুমিল্লা
শনিবার,২৮ মার্চ, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৪ চৈত্র, ১৪২৬ | ৩ শাবান, ১৪৪১
Bengali Bengali English English

বুড়িচংয়ে ৬ ফার্মেসী মালিককে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা

মেয়াদোর্ত্তীণ, নিষিদ্ধ ওষধ বাজার জাতকরণ, লাইসেন্স ও সার্টিফিকেট বিহীন ফার্মেসী পরিচালনার অপরাধে কুমিল্লার বুড়িচংয়ে ৬ ফার্মেসীর মালিকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ৩৩ হাজার টাকা আদায় জরিমানা আদায় করেছে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকরী ম্যাজিষ্ট্রেট জাকিয়া আফরিন ।

সোমবার (৩০ জুলাই) দুপুরে বুড়িচং সদর ও ভরাসার বাজার এলাকায় উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) জাকিয়া আফরিনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ড্রাগ সুপার হারুনুর রশিদ এবং প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

ভ্রাম্যমান আদালতে ১৯৪০ সালের ড্রাগ এ্যাক্ট ১৭,১৮(ক ও খ) এর অপরাধে মেয়াদোর্ত্তীণ, নিষিদ্ধ ওষধ বাজার জাতকরণ, লাইসেন্স বিহীন এবং সার্টিফিকেট বিহীন ফার্মেসী পরিচালনার দায়ে বুড়িচং সদর দক্ষিণ বাজারের বিসমিলল্লাহ মেডিকেল হলের মালিক আবদুল খালেককে ৩ হাজার টাকা, রতœা মেডিকেল হলের মালিক আবদুস সালাম কে ১০ হাজার টাকা, জেবু মেডিকেল হলের মালিক আবদুল কাদের জিলানীকে ৩ হাজার টাকা, ষোলনল ইউনিয়ন ভরাসার বাজার মেহের মেডিকেল হলে মালিক মো: মোর্শেদ আলমকে ১০ হাজার টাকা, গাউছিয়া মেডিকেল হলের মালিক মাহবুুবুর বাসার কে ২ হাজার টাকা, তাহের মেডিকেল হলের মালিখ আবু তাহের কে ৫ হাজার টাকা নগদ জরিমানা আদায় করা হয়।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাকিয়া আফরিন নতুন কুমিল্লাকে জানান, আমরা বুড়িচং এবং ভরাসার বাজার বিভিন্ন ফার্মেসীতে অবৈধ ও মেয়াদোর্ত্তীণ ঔষধ বিক্রি হচ্ছে এমন একাধিক অভিযোগ ভিত্তিতে এ অভিযান পরিচালনা করি। এখানে এসে দেখা যায় অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে মেয়াদউর্ত্তীণ ঔষধ বিক্রি করা হচ্ছে এবং বাজারজাতকরণ নিষিদ্ধ এমন ঔষধও বিক্রি করা হচ্ছে।

সে হিসেবে আমরা ১৯৪০ সালে ড্রাগ এ্যাক্ট ১৭,১৮(ক,খ) এর অপরাধে ২৭ ধারায় আমরা ৬ ফার্মিসীর মালিক থেকে জরিমানা আদায় করেছি। তিনি আরো বলেন, এই সকল সমস্যা সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

(নতুন কুমিল্লা/জেপি/কেকেএম/৩০ জুলাই ২০১৮)

আরও পড়ুন