কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,২২ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
৬ কার্তিক, ১৪২৭ | ৪ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২

চান্দিনায় কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদ শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের

চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ অধ্যক্ষ মো. মনিরুল ইসলাম ভূইয়ার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগে এনে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।ওই মামলাটি মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মূলক উল্লেখ করে দ্রুত প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন করে কলেজ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) বিকেলে চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজ ক্যাম্পাস-২ মমতাজ আহমেদ ভবনের সামনে ওই মানববন্ধন করে তারা।

কলেজ উপাধ্যক্ষ আবু হানিফ ভূইয়া নতুন কুমিল্লাকে জানান, গত ২৯ জুলাই জনৈক বাপ্পি নামে কোন এক ছেলে বিজ্ঞ আদালতে কলেজ অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম ভুঁইয়া, পরিচালনা পর্ষদ সদস্য জামসেদ আহমেদ জাকি সহ ৯ জনকে আসামী করে সন্ত্রাসী ও মারপিঠের অভিযোগে এনে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে। ওই মামলার প্রেক্ষিতে আদালতে চান্দিনা থানাকে এফআইআর ভক্ত করার নির্দেশ প্রদান করলে কোন রকম যাচাই-বাছাই ছাড়াই ৩০ জুলাই চান্দিনা থানায় মামলাটি এফআইআর ভুক্ত করা হয়।

ওই মিথ্যা মামলার ভিত্তিত্বে আমরা কলেজ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করার লক্ষ্যে মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজ এর দ্বিতীয় ক্যাম্পাসে মমতাজ আহমেদ ভবনের গেইট থেকে বের হলে পুলিশ আমাদের বাঁধা প্রদান করে। এক পর্যায়ে আমাদেরকে কলেজ ক্যাম্পাসে ঢুকিয়ে গেইট বন্ধ করে দেয় পুলিশ।

তিনি আরও জানান, আমরা পুলিশের তোপের মুখে কলেজ ক্যাম্পাসের ভিতরে গিয়ে মানববন্ধনটি শেষ করি। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এসএম জাকারিয়ার কাছে স্মারকলিপি প্রদান করি। আমরা এহেন মিথ্যা মামলার তীব্র প্রতিবাদ জানাই এবং কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মূলক মিথ্যা মামলায় মানহানী করার অপচেষ্টা লিপ্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানাই।

কলেজের একাধিক শিক্ষক অভিযোগ করে আরও বলেন, গত ১২ জুলাই কলেজের মামতাজ আহমেদ ভবন উদ্বোধন জন্য আগত অতিথি কর্ণেল (অব.) ড. অলি আহমেদ এর গাড়িতে আক্রমনের ঘটনায় কলেজ পরিচালনা পর্ষদ সদস্য জামশেদ আহমেদ জাকি বাদী হয়ে যে মামলার করেন এবং ২২ জুলাই কলেজের পন্ডিত শীল ভদ্র ছাত্রাবাস ভাংচুরের ঘটনায় অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম এর দায়ের করা মামলায় আজকের নাটকিয় মামলার তারাই বাদী ও স্বাক্ষী!

(নতুন কুমিল্লা/জেপি/টিবি/০১ আগষ্ট ২০১৮)

আরও পড়ুন