কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৪ আশ্বিন, ১৪২৭ | ১১ সফর, ১৪৪২

অবশেষে দেবিদ্বারে কুড়িয়ে পাওয়া শিশুটির ঠিকানা পেলো

অবশেষে একটি স্থায়ী ঠিকানা পেলো দেবিদ্বারে কুড়িয়ে পাওয়া সেই বেওয়ারিস শিশু ‘অভি’। সোমবার দুপুরে সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে শিশুটিকে লালন পালনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নার্স সৈয়দা নার্গিস আক্তার ও তার স্বামী দেবিদ্বার  ইবনে সিনা হসপিটালের ল্যাব ইনচার্জ মোঃ জামাল হোসেনের উপর।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবীন্দ্র চাকমা, জেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জেড.এম মিজানুর রহমান, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল আলম কামাল, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আহমেদ কবির, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ আবু তাহের সহ প্রশাসনের কর্মকর্তা, স্থানীয় সাংবাদিক ও গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

উল্লেখ্য গত ১৪ আগষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’র বকুলতলায় ওই শিশুটিকে কুড়িয়ে পায় হাসপাতালের নার্স সৈয়দা নার্গিস আক্তার। খবরটি উপজেলার সর্বত্র ছড়িয়ে পড়লে নার্স নার্গিস সহ অনেকেই শিশুটিকে দত্তক নিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরারর মৌখিক আবেদন করেন। প্রশাসন সাময়িক ভাবে দেখাশোনার দায়িত্ব দেয় নার্স নার্গিস আক্তারের উপর। নার্গিস ও জামাল দাম্পতি শিশুটির নাম রাখেন ফারহান আঞ্জুম অভি।

শিশুটিকে দত্তক দেয়ার ক্ষেত্রে দাপ্তরিক সকল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন শেষে ২৮ দিন পর গতকাল সোমবার আনুষ্ঠানিক ভাবে শিশুটিকে লালন পালনের দায়িত্ব দেওয়া হয় ওই নার্স নার্গিস ও তার স্বামী মোঃ জামাল হোসেনের উপর। নার্গিস আক্তার জানান, অভির দায়িত্ব নিতে পেরে অনেক গর্ববোধ করছি, নিজকে অনেক ভাগ্যবতি মনে হচ্ছে। তিনি প্রশানস সহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং শিশুটির জন্য দোয়া চান।

আরও পড়ুন