কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,১ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৬ আশ্বিন, ১৪২৭ | ১৩ সফর, ১৪৪২

বুড়িচংয়ে পূর্ব বিরোধের জেরে হামলায় আহত ব্যক্তির মৃত্যু

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত নাইমুল ইসলাম (৪৩) চিকিৎসাধীন অবস্থায় নগরীর মুন হাসপাতালে মারা যান।

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে কুমিল্লা মুন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাইমুল ইসলামের মৃত্যু হয়। এর আগে ৬ সেপ্টেম্বর রাতে উপজেলার ময়নামতির হরিণধরায় সন্ত্রাসীরা নাইমুল ইসলামকে রড দিয়ে পিটিয়ে মারাতœকভাবে আহত করেছিল।

নিহত নাইমুল ইসলাম জেলার বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের হরিণধরা গ্রামের মৃত. মফিজুল ইসলামের ছেলে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নাইমুল ইসলামের সাথে প্রতিবেশিদের সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গত ৬ সেপ্টেম্বর রাত আনুমানিক সোয়া ১০ টায় নাইমুল বাড়ির পাশে একটি চা দোকান থেকে ঘরে ফেরার সময় একই এলাকার মনির, আলমগীর , সোহেলসহ অজ্ঞাত ৭/৮ জন যুবক নাইমুলের উপর হামলা চালায়। এসময় তাকে রড দিয়ে পিটিয়ে মারাতœক জখম করে। তার চিৎকারে গ্রামবাসি এগিয়ে আসলে হামলাকারিরা পালিয়ে যায়। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে ৯ সেপ্টেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মহানগরীর ঝাউতলা এলাকায় ‘মুন’ নামের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। আজ বিকেলে জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাইমের মৃত্যু হয়। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে অবস্থান নেয়।

এ বিষয়ে বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকুল চন্দ্র বিশ্বাস মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে নতুন কুমিল্লাকে জানান, আগে মারামারির ঘটনায় একই এলাকার মনির , আলমগীর , সেহেলসহ অজ্ঞাত ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে ৭ সেপ্টেম্বর একটি মামলা হয়েছে। এখন এটা নিয়মিত হত্যা মামলা হবে।

আরও পড়ুন