কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,৬ মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২৩ বৈশাখ, ১৪২৮ | ২৩ রমজান, ১৪৪২

‘কুমিল্লার শ্রেষ্ঠ মানুষ নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানী’

কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার বলেছেন, ‘কুমিল্লার শ্রেষ্ঠ মানুষ নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানী। বেগম রোকেয়ারও ৭ বছর আগে তিনি ফয়জুন্নেছা স্কুল প্রতিষ্ঠিত করেছেন। আমাদের ব্যর্থতা, আমরা কুমিল্লাবাসী নবাব ফয়জুন্নেছার যে গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস তা ধারণ করতে পারিনি। আমিই প্রথম জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানীর কথা বলেছি। শচীন কর্তা, ওস্তাদ আয়াত আলী খাঁ’র কথা বলেছি। আমাদের দুভার্গ্য কুমিল্লার কৃতীসন্তানদের আমরা স্মরণ করি না। অদ্ভুত কুমিল্লা, যদিও আমি বলি, কুমিল্লা এগুলে বাংলাদেশ এগুবে। কীভাবে এগুবে? আমি কুমিল্লা বিভাগের দাবিকে সামনে রেখে কুমিল্লা মহানগর গঠন করেছি। শচীন কর্তার বাড়িটি উদ্ধার করেছি। প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কথা বলেছিলাম। প্রতিশ্রুতিও পেয়েছিলাম।

বিদেশে থাকার কারণে ‘প্রযুক্তি’ শব্দটি বাদ দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় করা হয়েছে। প্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ গড়তে প্রযুক্তিগতভাবে আমাদের এগুতে হবে। আমরা নবাব ফয়জুন্নেছার উত্তরসুরি, শহীদ ধীরেন্দ্র দত্তের উত্তরসুরি। আমাদের গর্বের ইতিহাস ঐতিহ্য রয়েছে। ইতিহাসের সঠিক ধারাকে অব্যাহত রাখতে হবে। একচল্লিশ সালের জ্ঞাননির্ভর উন্নত বাংলাদেশ গড়তে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।’

জেলা প্রশাসন আয়োজিত নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানীর ১১৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে  রবিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ফয়জুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম, লেখক ও গবেষক এডভোকেট গোলাম ফারুক, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কুমিল্লা শাখার সভাপতি ও নবাব ফয়জুন্নেছা ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা পাপড়ী বসু, নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানীর পঞ্চম বংশধর সৈয়দ মো: এনামুল হক।

বক্তব্য রাখেন নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রোকসানা ফেরদৌস মজুমদার। সূচনা বক্তব্য রাখেন নবাব ফয়জুন্নেছা ফাউ-েশনের সভাপতি আজাদ সরকার লিটন। বক্তারা নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানীর জীবনী পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্তকরণ ও তাঁর নামে পুরস্কার প্রবর্তনের দাবি জানান।

সভার প্রাথমিক পর্যায়ে নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানী রচিত ‘রূপজালাল’ গ্রন্থের কিছু অংশ পাঠ করেন নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের দু’জন ছাত্রী। অনুষ্ঠান সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন জেলা কালচারাল অফিসার সৈয়দ মোহাম্মদ আয়াজ মাবুদ।

আরও পড়ুন