কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২৪ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | ৮ রবিউস-সানি, ১৪৪২

লাকসাম-শ্রীয়াং সড়কটি গিলেগাচ্ছে পুকুরে !

লাকসাম-শ্রীয়াং সড়কের বিভিন্ন অংশ এভাবেই পাশের পুকুরে ধসে পড়ছে/ ছবি: নতুন কুমিল্লা

কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার লাকসাম-শ্রীয়াং সড়কের বেশির ভাগ স্থানের পিচঢালাই উঠে গিয়ে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়াও সড়কটির বিভিন্ন অংশ পাশের পুকুরে ধসে পড়ছে। সমস্যা সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে বারবার ধরনা দিয়েও কোনো লাভ হয়নি বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থায় পড়ে থাকার কারণে লাকসাম-শ্রীয়াং সড়কটি দিয়ে চলাচলকারী যানবাহন ও যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। এলজিইডির আওতাধীন ১২ কিলোমিটারের এই সড়কের অসংখ্য স্থান পাশের পুকুরে ধসে পড়েছে। সড়কের বেশির ভাগ স্থানের পিচঢালাই উঠে গিয়ে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ডাকাতিয়া নদীর কোল ঘেঁষে যাওয়ায় সড়কটির অনেক অংশ নদীতে ভেঙে পড়ছে। সড়কটি সংস্কারের দাবিতে বেশ কয়েকবার সিএনজিচালিত অটোরিকশা পরিবহন শ্রমিকরা গাড়ি বন্ধ রেখে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেছে। কিন্তু কোনো লাভ হয়নি।

উপজেলার শ্রীয়াং গ্রামের বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম নতুন কুমিল্লাকে বলেন, সড়কপথে চলতে গিয়ে খানাখন্দে ঝাঁকুনি খেতে খেতে শরীর ব্যথা হয়ে যায়। জরুরি কোনো রোগী এ পথে গেলে তাঁর অবস্থা আরো শোচনীয় হয়ে ওঠে।

এ প্রসঙ্গে লাকসাম উপজেলা প্রকৌশলী খন্দকার গোলাম শওকত নতুন কুমিল্লাকে বলেন, ‘এরই মধ্যে এক কোটি ৯৩ লাখ টাকা ব্যয়ে লাকসাম উপজেলা সদর থেকে বাতাখালী পর্যন্ত ৩ দশমিক ৫ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কারকাজের দরপত্র হয়েছে। শিগগিরই কাজ শুরু হবে। এ ছাড়া সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয়ে বাকি ৪ দশমিক ৫ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কারের প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আশা করি, চলতি বাজেটেই বরাদ্দ পাওয়া যাবে। আর শ্রীয়াং থেকে মুদাফরগঞ্জ পর্যন্ত চার কিলোমিটার রাস্তার সংস্কারকাজ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে।’

আরও পড়ুন