কুমিল্লা
শুক্রবার,২৭ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | ১১ রবিউস-সানি, ১৪৪২

তথ্য জেনে যেনো তথ্যের অপব্যবহার করা না হয়: জেলা প্রশাসক

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর বলেছেন, সুশাসন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার তথ্য অধিকার আইন প্রণয়ন করেছে। পাকিস্তান আমলে তথ্য জানার অধিকার ছিল না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৬ দফা দাবি উত্থাপনের মাধ্যমে তথ্য জানার অধিকারকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। ৭ মার্চ ভাষণের মধ্য দিয়ে তিনি মানুষের মৌলিক অধিকার আদায়ের দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৯ সালে তথ্য অধিকার আইন প্রণয়ন করেছেন।

কুমিল্লায় ৭০টি সরকারি অফিসে তথ্য জানানোর অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়েও তথ্য জানার বিষয় নিশ্চিত করা হয়েছে। প্রত্যেকটি সরকারি অফিসে তথ্য প্রদানকারী অফিসার রয়েছে। তবে তথ্য জেনে যেনো তথ্যের অপব্যবহার করা না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। তথ্য বিভ্রান্তিকারীদের সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও সচেতন নাগরিক কমিটি-সনাক কুমিল্লা আয়োজিত দু’দিনব্যাপি তথ্য মেলায় শুক্রবার টাউন হল প্রাঙ্গণে বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম মঞ্চে সমাপনী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি কুমিল্লা শাখার সভাপতি প্রফেসর আমীর আলী চৌধুরী, সিভিল সার্জন ডা. মো. মজিবুর রহমান ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানভীর সালেহীন ইমন।বক্তব্য রাখেন সচেতন নাগরিক কমিটি কুমিল্লার সভাপতি বদরুল হুদা জেনু।সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কাইজার মোহাম্মদ ফারাবী।স্বাগত বক্তব্য রাখেন তথ্য মেলা উদযাপন কমিটির আহবায়ক রোকেয়া বেগম শেফালী।

জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণ থেকে র‌্যালি বের হওয়ার মধ্য দিয়ে দিবসের কার্যক্রম শুরু হয়।২ দিনব্যাপি তথ্য মেলায় সরকারি- বেসরকারি অফিস ও বিভিন্ন সংস্থার ৩৬টি স্টল স্ব স্ব বিভাগের তথ্য-উপাত্ত জনগণের মাঝে বিতরণ ও প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করে। এছাড়া মেলায় মুক্তিযুদ্ধের আলোকচিত্র ও দুর্নীতিবিরোধী কাটুন প্রদর্শন করা হয়।

আরও পড়ুন