কুমিল্লা
শুক্রবার,৪ ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | ১৭ রবিউস-সানি, ১৪৪২

আদিবাসী কোটা বহালের দাবিতে কুমিল্লায় মানববন্ধন

মন্ত্রিপরিষদের নেওয়া কোটা বাতিলের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর সরকারি চাকুরিতে ৫ শতাংশ আদিবাসী কোটা বহালের দাবিতে মানববন্ধন করেছে আদিবাসী ছাত্র সংসদ কুমিল্লা শাখা।

রবিবার (৭ অক্টোবর) বিকাল ৪টায় কুমিল্লা টাউন হল গেইটের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা সার্ভে ইন্সটিটিউট ও কুমিল্লার অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত আদিবাসী শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়।

৫% আদিবাসী কোটা বহালের দাবিতে কুমিল্লায় মানববন্ধনএসময় আদিবাসী শিক্ষার্থীরা সরকারি চাকুরিতে ৫ শতাংশ আদিবাসী কোটা বহালের দাবিতে ব্যানার-ফেস্টুন হাতে বিভিন্ন শ্লোগান দেয় এবং আদিবাসী কোটা বহালের জোর দাবী জানায়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আদিবাসী কোটা বাতিলের সিদ্ধান্ত অত্যন্ত দুঃখজনক। এবং দেশে অনগ্রসর জনগোষ্ঠী নাই এ কথাটা ভিত্তিহীন। আদিবাসীরা আগের চেয়ে খানিকটা ভালো অবস্থানে থাকলেও এখনো অনগ্রসর জনগোষ্ঠী। কোটা আদিবাসীদের সাংবিধানিক অধিকার। তাই অনতিবিলম্বে আদিবাসী জনগোষ্ঠির জন্য যে ৫ শতাংশ কোটা আছে তা বহালের সিদ্ধান্ত ও ঘোষণা চাই।

৫% আদিবাসী কোটা বহালের দাবিতে কুমিল্লায় মানববন্ধনএসময় উপস্থিত ছিলেন- আদিবাসী ছাত্রসংসদ কুমিল্লা মহানগর শাখার সভাপতি সনাতন তালুকদার, যুগ্ম সম্পাদক বাইক্যচিং মারমা, অর্থ সম্পাদক হৃপু চাই মারমা, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা কমিটির সভাপতি অমিয় কান্তি চাকমা, সাধারণ সম্পাদক মংকিং রাখাইন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শশী কুমার ত্রিপুরা, অর্থ সম্পাদক হৃদয় ত্রিপুরা।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের সিদ্ধান্ত অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের যে সুপারিশ করেছিল সরকারি কমিটি, তাতে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। অর্থাৎ ৯ম থেকে ১৩তম গ্রেড পর্যন্ত চাকরিতে কোনো কোটা থাকবে না। এসব পদে নিয়োগ হবে মেধার ভিত্তিতে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ প্রস্তাব অনুমোদন হয়।

আরও পড়ুন