কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২০ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
৪ কার্তিক, ১৪২৭ | ২ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২

‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-এর ছোট্ট শিশুটি এখন দেখতে কেমন?

বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়া অভিমানী একটি ছোট্ট ছেলের ‘রামুকাকা’ ডাক ও জিলাপি পেয়ে মত্ত পেয়ে ওঠা দর্শকদের মন জয় করেছিল। মনে পড়ে সেই ভোজ্য তেলের বিজ্ঞাপন? এর পর ছেলেটি হাজির হয় রুপালি পর্দায়। ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’ (১৯৯৮) ছবিতে তার কচি কণ্ঠে ‘তুসি যা রহে হো? তুসি না যাও’ ডায়লগ মাতিয়ে দেয় আসমুদ্র হিমাচল। সে বছর শ্রেষ্ঠ শিশু অভিনেতার ‘আশীর্বাদ অ্যাওয়ার্ড’ পায় সেই ছোট্ট ছেলে পারজান দস্তুর।

সেটা ১৯৯৮ সালের কথা। তার পর বেশ কয়েকটি ছবিতে দেখা যায় তাকে। যার মধ্যে ‘কাভি খুশি কাভি গম’ (২০০১) বা ‘মহব্বতে’ (২০০০)-এর মতো সুপারহিট ছবি ছিল। পরবর্তী সময়ে ‘পারজানিয়া’ (২০০৫) ছবিতেও তার অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছিল সবার।

সেই ছোট্ট ছেলেকে এখন এমনই দেখতে

এবেলা পত্রিকার খবরে বলা হয়, কয়েক বছর ইন্ডাস্ট্রিতে কাটানোর পরে সে খানিক অনিয়মিত হয়ে পড়ে পর্দায়। গত বছরে মুক্তি পেয়েছে ‘পকেট মানি’ নামের একটি শর্ট ফিল্ম। সে ছবিতে দীর্ঘ দিন বাদে দেখা গিয়েছিল পারজানকে। ছবির গল্পও তার লেখা। পাশাপাশি পারজান একজন দক্ষ পিয়ানো বাদক। সাত বছর থেকেই সে পিয়ানো শিখছে।

তবে এত কিছু করলেও দর্শকদের কাছে আজও সে সেই বিশ বছর আগের ছোট্ট শিশুটি। কোমল, নিষ্পাপ সেই ছেলেটির খ্যাতি আজও বয়ে বেড়াতে হচ্ছে বছর ছাব্বিশের তরুণ পারজানকে।

আরও পড়ুন