কুমিল্লা
মঙ্গলবার,১ ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | ১৫ রবিউস-সানি, ১৪৪২

‘নির্বাচনের আগে কুমিল্লার সব রাস্তার কাজ সম্পন্ন করতে হবে’

জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর বলেছেন, সরকার ১০ বছরে দেশের ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। এমন কোনো খাত নেই যেখানে সরকারের উন্নয়নের স্পর্শ লাগেনি। কুমিল্লার ২-৩ টি রাস্তার জন্য জনদুর্ভোগ বেড়েছে। নির্বাচনের আগেই কুমিল্লার সকল রাস্তার কাজ সম্পন্ন করতে হবে। নির্বাচনকে সামনে রেখে যাতে কোনো বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি না হয় সেজন্য সকলকে সতর্ক থাকতে হবে। অনুমতি ছাড়া ওয়াজ-মাহফিল করা যাবে না। যারা ওয়াজ করবেন তাদের নামের তালিকা প্রশাসনের কাছে জমা দিতে হবে।

আগামী ৩ মাসের মধ্যে ইউনিয়ন পর্যায়ে কওমী মাদ্রাসার তালিকা জেলা প্রশাসনের নিকট জমা দিতে হবে। প্রত্যেক কওমী মাদ্রাসার ‘ডাটাবেজ’ থাকতে হবে। প্রতিটি সরকারি-বেসরকারি ও মার্কেটে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র থাকতে হবে। জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। গতকাল জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম। তিনি বলেন, কওমী মাসাদ্রাগুলোকে একটি সিস্টেমে আনতে হবে। রাস্তাঘাটের দুর্ভোগ সম্পর্কে তিনি বলেন, সরকারের এতো উন্নয়নের সুনাম গুটি কয়েক রাস্তার জন্য ক্ষুণœ হতে পারে না। তিনি দুর্ঘটনার কারণ বলতে গিয়ে বলেন, ভাঙ্গাচুরা রাস্তার কারণে দুর্ঘটনা কমানো যাচ্ছে না। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দুর্গোৎসব এখন বাঙালির উৎসবে পরিণত হয়েছে। এ উৎসব যাতে সুষ্ঠু ও সুশৃঙ্খলভাবে পালিত হয় সেজন্য পুলিশি তৎপরতা বাড়ানো হবে।

বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক ও কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি আলহাজ্ব মো: ওমর ফারুক। তিনি বলেন, দুর্গাপূজা এখন সর্বজনীন। কুমিল্লায় জামায়াত-শিবিরের শক্ত ঘাঁটি আছে। তাদের অশুভ তৎপরতা যাতে না ঘটে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিনা অনুমতিতে যাতে ওয়াজ-মাহফিল না হয় সেজন্য তিনি প্রস্তাব করেন। রাত ১১টার পর যাতে মাইক বাজানো না হয়- এ প্রস্তাবও তিনি উত্থাপন করেন। কুমিল্লা মহানগরের কয়েকটি রাস্তায় ছিনতাইয়ের ঘটনা বেড়েছে বলে তিনি জানান।

বক্তব্য রাখেন বিজিবি-১০ ব্যাটলিয়ানের উপ-অধিনায়ক আবদুল্লাহ আল ফারুকী পিএসসি, সিভিল সার্জন ডা: মুজিবুর রহমান, এনএসআই এর সহকারি পরিচালক সোহরাওয়ার্দী মো: আলমগীর, পিপি মোস্তাফিজুর রহমান লিটন, আনসার ভিডিপি জেলা কমান্ডেন্ট শুভ চৌধুরী, লাকসাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট মো: ইউনুছ ভূইয়া, বরুড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদুল খালেক চৌধুরী, পূজা উদযাপন পরিষদ কুমিল্লা জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল পাল, সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রূপালী ম-লসহ বিভিন্ন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাগণ।

সিভিল সার্জন ডা: মুজিবুর রহমান জানান, গতমাসে অবৈধ ঔষধ বিক্রির অভিযোগে ২৫ লাখ টাকা কুমিল্লার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে জরিমানা আদায় করা হয়েছে। সভায় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ হোসেন সিদ্দিক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কুমিল্লা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো: মানজুরুল ইসলাম, জেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আব্দুল মজিদ, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ভিকারুন্নেছা, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ পরিচালক জেড. এম মিজানুর রহমান, পরিবেশ অধিদপ্তর কুমিল্লা কার্যালয়ের উপ পরিচালক মো: ছামছুল আলম প্রমুখ।

আরও পড়ুন