কুমিল্লা
শুক্রবার,৪ ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | ১৮ রবিউস-সানি, ১৪৪২

ময়নামতিতে আ.লীগের কার্যালয়ে বিস্ফোরন: আটক ২

ময়নামতিতে আ’লীগ কার্যালয়ের সামনে ককটেল স্ফোরন (বামে) আটক দু’জন/ ছবি: নতুন কুমিল্লা

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড় টায় বিকট শব্দে বিস্ফোরন ঘটে বলে পুলিশ জানায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫টি অবিস্ফোরিত ককটেল উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় অভিযান চালিয়ে বুধবার (১৭ অক্টোবর) পুলিশ দু’জনকে আটক করেছে।

আটকরা হলেন, ময়নামতি ইউনিয়নের সমেষপুর এলাকার মৃত আবদুর রহিমের ছেলে ও ওয়ার্ড বিএনপির সেক্রেটারী গাজী শাহ আলম (৪৬), ও একই এলাকার সুন্দর আলীর ছেলে মোঃ রুহুল আমিন (৪০)।

পুলিশ সূত্র জানায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে বুড়িচং থানাধীন দেবপুর ফাঁড়ী পুলিশের নিকট খবর আসে ময়নামতি বাজারে অবস্থিত ইউনিয়ণ আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে বিকট শব্দে বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটেছে। এ খবরে দ্রুত ঘটনাস্থলে যান বুড়িচং থানার অফিসার ইনচার্জ আকুল চন্দ্র বিশ্বাস, দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আবু ইউসুফ ফসিউজ্জামান, এস আই শাহীন কাদের, এস আই ইকতার মিয়া।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বাজারের নৈশ্য প্রহরী মোঃ বিল্লাল হোসেনকে জিজ্ঞাসা করলে সে জানায় রাত অনুমান দেড়টায় বিকট শব্দে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে বিস্ফোরণ ঘটে। সে দৌড়ে ঘটনাস্থলে গেলে দেখতে পায় একদল লোক দৌড়ে পালিয়ে যাচ্ছে। বিস্ফোরনে শব্দে বাজারের আশে-পাশের লোকজন ঘটনাস্থলে আসে। পুলিশ এসময় ঘটনাস্থল থেকে ৫টি অবিস্ফোরিত ককটেল উদ্ধার করে। এ ঘটনায় দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ীর এস আই ইকতার মিয়া বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যাক্তিদের নামে বিস্ফোরক আইনে বুড়িচং থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ওই ঘটনায় ওয়ার্ড বিএনপির সেক্রেটারী গাজী শাহ আলম, ও মোঃ রুহুল আমিনকে আটক করা হয়।

বুড়িচং থানা অফিসার ইনচার্জ আকুল চন্দ্র বিশ্বাস নতুন কুমিল্লায় জানান, ককটেল বিস্ফোরনের ঘটনায় থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দু’জনকে আটক করেছে। আটককৃতদের বুধবার আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন