কুমিল্লা
সোমবার,২৬ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১০ কার্তিক, ১৪২৭ | ৭ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২

গৌরীপুর সুবল অাফতাব উচ্চ বিদ্যালয়ে স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান:

শিক্ষার্থীরা স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে: দাউদকান্দিতে বিজ্ঞানী মঈন

পরিত্যক্ত প্লাস্টিক বর্জ্যকে কাজে লাগিয়ে জ্বালানী আবিস্কারক ও দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর সু্বল আফতাব উচ্চ বিদ্যালের প্রাক্তন ছাত্র বিজ্ঞানী ড. মঈন উদ্দীন সরকার বলেন, আমি এ বিদ্যালয়ের ছাত্র। আজ অনেক বছর পর এখানে আসতে পেরে ভালো লাগছে। লিজিং ও হোস্টেলে থেকে লেখাপড়া করেছি। এবিদ্যালয়ে পড়ালেখা করেই আজ বিজ্ঞানী হয়েছি। তোমাদেরকেও স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। তুমি কী করতে চাও। সে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

তিনি বলেন, আমাকে এ অবস্থানে আসতে অনেক কস্ট করতে হয়েছে। তোমারাও নিয়মিত অধ্যাবসায় করো।সফল হবেই। আমি এ বিদ্যালয়ের ছাত্র। এটার প্রতি আমার দরদ রয়েছে। এখানকার যে কোন প্রয়োজনে আমাকে পাবে। আমি তোমাদের পাশে থাকতে চাই। তোমাদের যে কোন সমস্যা ও প্রয়োজনে আমাকে স্বরন করবে। আমি সারা দিবো।

মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) সকালে দাউদকান্দির গৌরীপুর সুবল অাফতাব উচ্চ বিদ্যালয়ে চত্বরে আয়োজিত স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

বিজ্ঞানী ড. মঈন উদ্দীন সরকার আরো বলেন, তোমরা যারা পানি খেয়ে প্লাস্টিকের বোতল ফেলে দাও। যা নিয়ে কেহ ভাবে না। সেটাকে কাজে লাগিয়ে আমি ওয়েল আবিস্কার করেছি। পরিত্যক্ত প্লাস্টিক থেকে পেট্রোল, অকটেন, জেটওয়েল ও এলপি গ্যাস আবিস্কার করেছি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সেলিম মিয়ার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, বিজ্ঞানী ড. আঞ্জুমান সেলী, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ওমর ফারুক মিয়াজী। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, নবম শ্রেনীর ছাত্র, অাফরিন জাহান মুন ও ইরাম, ৬ষ্ঠ শ্রেনীর কারিমা ও মাসফিকা।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক হাবিবুর রহমান হাবিব। এসময় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলো জাকির হোসেন হাজারী, ওমর ফারুক, আবুল কাশেম, আবু মুসা ও কালুন ভূঁইয়াসহ শিক্ষক, শিক্ষার্থীবৃন্দ।

আরও পড়ুন