কুমিল্লা
মঙ্গলবার,১ ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | ১৪ রবিউস-সানি, ১৪৪২

প্রাণিবিজ্ঞান অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠান:

মৎস উৎপাদনে বাংলাদেশ বিশ্বের রোলমডেল: প্রফেসর রতন কুমার সাহা

বাংলাদেশ মৎস উৎপাদনে বিশ্বের রোলমডেল হয়েছে। এটি একমাত্র প্রাণিবিজ্ঞানের গবেষণা ও সরকারের প্রচেষ্টার কারণে সম্ভব হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ডিগ্রী শাখা অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রাণিবিজ্ঞান অলিম্পিয়াড-২০১৮ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিক্টোরিয়া কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর রতন কুমার সাহা এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ”প্রাণিবিজ্ঞান অলিম্পিয়াড মানব কল্যাণে প্রাণির সম্প্রসারণে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। এটি শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশ ঘটাতে সাহায্য করবে।

“বৃহত্তর কুমিল্লা এবং নোয়াখালী অঞ্চলের মোট ৬টি জেলার ৪শ শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে কলেজ উপাধ্যক্ষ ড. মোঃ আবু তাহেরর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মৎস্য অধিদপ্তর চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক মোঃ বজলুর রশিদ, ভিক্টোরিয়া কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর বিজয় কৃষ্ণ রায় এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের প্রধান প্রফেসর বিভূতিভূষণ দেবনাথ।

উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর সরকারি কলেজের প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সৌকত ইকবাল ফারুকী, মহিলা কলেজের প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক অনুকূল চন্দ্র দাস, ভিক্টোরিয়া কলেজের প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের ফরিদা আক্তার প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে কলেজ উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আবু তাহের বলেন, “প্রাণিবিজ্ঞানের গভেষণার ক্ষেত্রে এ ধরনের প্রতিযোগিতা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে তাই তিনি প্রতিবছর এ অনুষ্ঠানটি অব্যহত রাখার প্রতিশ্রুতি ব্যাক্ত করেন।

“প্রাণিবিজ্ঞান অলিম্পিয়াড ও আঞ্চলিক সম্পাদক এবং ভিক্টোরিয়া কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড.মহিউদ্দিন মোঃ শাহজাহান অনুষ্ঠানটি সফলভাবে সম্পন্ন করায় সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

তিনি জানান, এই প্রতিযোগিতার প্রাথমিক পর্যায়ের লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে ৬জন প্রতিযোগি এবং পরবর্তীতে মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে ২জন কে বিজয়ী করে জাতীয় পর্যায়ে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং সকাল ১০টায় শান্তির পায়রা উড়িয়ে অলিম্পিয়াড ২০১৮অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ভিক্টোরিয়া কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর রতন কুমার সাহা। পরে তার নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যলী বের হয়। দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানটি দারুণভাবে উপভোগ করেন শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা।

আরও পড়ুন