কুমিল্লা
শনিবার,৮ মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২৫ বৈশাখ, ১৪২৮ | ২৫ রমজান, ১৪৪২

‘কুমিল্লায় প্রত্যেক বাড়ি ও অফিসে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র রাখার নির্দেশ’

কুমিল্লায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। বিগত ৩ মাসের মধ্যে কুমিল্লা জেলায় বড় ধরনের কোনো অঘটন ঘটে নি। কোরবানির ঈদ, উন্নয়ন মেলা, দুর্গাপূজা, লক্ষ্মীপূজা, কালীপূজা, তথ্যমেলা সহ বেশ কিছু উৎসব ও মেলা, বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খল পরিবেশে হয়েছে ও হচ্ছে। বিশেষ করে দূর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে অজানা আশংকা থাকলেও বিধাতার অশেষ কৃপা, জনবল ও দৃঢ় মনোবলের কারণে কোনো অঘটন ঘটেনি। সামনে জাতীয় নির্বাচন। নির্বাচনকালীন সময়েও যাতে কুমিল্লায় কোনো অঘটন না ঘটে সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সকলকে সতর্ক থাকতে হবে।

কুমিল্লায় খুনসহ গুরুতর অপরাধের ঘটনা কমেছে। ছোটখাটো ছিনতাইয়ের ঘটনা খানিকটা বেড়েছে। হাউজিং এস্টেট রোড, তালপুকুর পাড় রোড, হোচ্ছামিয়া হাই স্কুল রোডে ছিনতাই বেড়েছে, রাস্তা খোড়াখুড়ির কারণে যানজটের ঘটনা কমেনি বরং কোনো কোনো ক্ষেত্রে বেড়েছে। রবিবার জেলা প্রশাসন আয়োজিত জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় বক্তাদের বক্তব্যে এসব কথা ওঠে আসে। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর। তিনি বলেন, সম্প্রতি গ্যাস সিলিন্ডারের মাধ্যমে অগ্নিকান্ডের ঘটনা বেড়েছে। তিনি প্রত্যেক বাড়ি ও প্রতিটি অফিসে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র রাখার নির্দেশ দেন।

পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, এখন শীতকাল। ওয়াজ মাহফিলের জন্য অনেকে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। বিনা অনুমতিতে কাউকে ওয়াজ মাহফিল করতে দেয়া হবে না। ধর্মের নামে উসকানিমূলক বক্তব্য দেয়া যাবেনা।

কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্রাক্তন প্রশাসক আলহাজ্ব মো: ওমর ফারুক বলেন, শহরের ফুটপাতগুলো অযাচিতভাবে বেদখল হয়ে গেছে। লিবার্টি সিনেমা হলের সামনে রীতিমত ফুটপাতের উপর দোকানপাট বসানো হয়েছে। ওয়াজ মাহফিলে ধর্মের নামে যাতে রাজনৈতিক বক্তব্য যাতে দেয়া না হয় সেজন্য ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তিনি পুলিশ সুপারকে অনুরোধ করেন।

বক্তব্য রাখেন আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট আমিনুল ইসলাম টুটুল, চান্দিনা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল খালেক চৌধুরী, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কুমিল্লা কার্যালয়ে উপ পরিচালক মো: মানজুরুল ইসলাম, পরিবেশ অধিদপ্তর কুমিল্লা কার্যালয়ের উপ পরিচালক মো: ছামছুল আলম, পিপি এডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান লিটন, জেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আবদুল মজিদ, সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট কুমিল্লা অঞ্চলের ট্রাস্টি নির্মল পাল প্রমুখ।

আরও পড়ুন