কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২০ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
৪ কার্তিক, ১৪২৭ | ২ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২

কুমিল্লার সিদলাই’র সেই বাড়িটি প্রধানমন্ত্রীকে পরিদর্শনের আহবান

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানকে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় পাকিস্থানী শাসক আইয়ুব খাঁন সরকার যখন ঘোষণা করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ঢাকার বাহিরে পাওয়া গেলে তাকে রাজবন্ধী করা হবে, সে সময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আগরতলায় অবস্থান করছিলেন।

আইয়ুব খাঁন সরকারের ঘোষণার পর কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সিদলাই গ্রামের মরহুম আবদুস ছাত্তার ভূইয়া আগরতলায় এক বন্ধুর সহযোগিতায় আগরতলা থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সাথে করে পায়ে হেটে অনেক কষ্টে শিদলাই নিজের বাড়ীতে নিয়ে আসে। বঙ্গবন্ধু সেখানে তিনদিন অবস্থান করেছিলেন। তিন দিন পর মরহুম আবদুস ছাত্তার ভূইয়া ওই গ্রামের এক জন চকিদার মোঃ সোনা মিয়াকে সঙ্গে নিয়ে পালকিতে করে বঙ্গবন্ধুকে রামচন্দ্রপুর লঞ্চ ঘাট নিয়ে যায় এবং একটি লঞ্চ ভাড়া করে অতি গোপনে নারায়নগঞ্জ পৌছে দেয়।

মরহুম আবদুস ছাত্তার ভূইয়া নারায়নগঞ্জ থেকে একটি প্রাইভেট গাড়ি ভাড়া করে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ঢাকায় পৌছান। ঢাকায় পৌঁছামাত্রই আইয়ুব খাঁন সরকার বঙ্গবন্ধুকে রাজবন্ধী করে ফেলে। দেশ স্বাধীনের পর বঙ্গবন্ধু যখন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বভার গ্রহণ করেন তখন বহুবার মরহুম আবদুস ছাত্তার ভূইয়া এবং তার বড় ভাই মরহুম আবদুল লতিফ ভূইয়া বঙ্গবন্ধুর সাথে বঙ্গভবনে সাক্ষাৎ করেছিলেন। ১৯৭৫ সালে ১৫ আগষ্ট সকাল ১১টার সময় বঙ্গভবনে মরহুম আবদুস ছাত্তার ভূইয়া এবং মরহুম আবদুল লতিফ ভূইয়া বঙ্গবন্ধুর সাথে দেখা করেন এবং শিদলাই গ্রামে আসার জন্য অনুরোধ জানান।

বঙ্গবন্ধু সিদলাই গ্রামে একবার আসবেন বলে কথা দিয়েছিলেন। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর জীবদ্দশায় আর আসা হয় নাই। বর্তমানে শিদলাই গ্রামবাসী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সিদলাই গ্রামের কৃতি সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার এমএ মান্নান বীর বিক্রম ২১ নভেম্বও বুধবার প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রনে বীর বিক্রম হিসাবে সাক্ষাৎ করবেন বিধায় তার মাধ্যমে শেখ হাসিনাকে সিদলাই গ্রামে আসার আমন্ত্রন জানিয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়। মুক্তিযোদ্ধা বীর বিক্রম এমএ মান্নান উল্লেখিত বিষয়টি অবগত আছেন।

সিদলাই গ্রামবাসীর ইচ্ছা বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় বঙ্গবন্ধু যে গ্রামে এসে তিনদিন অবস্থান করেছিলেন সে গ্রামে একবার এসে পরিদর্শন করে গ্রামবাসীকে ধন্য করবেন এমনটাই গ্রামবাসী আশা করে। আবেদন জানিয়েছেন গ্রামবাসীর পক্ষে মৃত আবদুস সাত্তার ভ’ইয়ার ছেলে মোঃ মিজানুর রহমান ভূইয়া। সিদলাই, ব্রাহ্মণপাড়া, কুমিল্লা। মোবাঃ ০১৯৪৩-৬৯৬৮৪৬।

আরও পড়ুন