কুমিল্লা
শনিবার,১৯ জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৫ আষাঢ়, ১৪২৮ | ৮ জিলকদ, ১৪৪২

নিখোঁজের ৯ মাস পর কুমিল্লার প্রবাসী হারুনের লাশ মিললো হাসপাতালে!

প্রতীকী ছবি

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার মোকাম ইউনিয়নের কাকিয়ারচর গ্রামের মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে সৌদি প্রবাসী হারুন মিয়া (৫৫) গত ফেব্রুয়ারী মাসে দেশে আসেন। প্রায় ৬/৭ লক্ষ টাকা দেনা ছিলেন এলাকায়। দেশে এসে পাওনাদারদের চাপ বাড়তে থাকায় পরিবারের কাউকে কিছু না জানিয়ে হঠাৎই ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি একদিন নিখোঁজ হয়ে যান তিনি। বহু খোঁজাখুঁজি করেও তার কোন খোঁজ পায়নি পরিবার। কোথায় আছেন কি করেন কিছুই জানতেন না বলে জানায় তার স্ত্রী সামসুন নাহার (৩৪)।

সোমবার (২৬ নভেম্বর ) সকালে বুড়িচং থানার দেবপুর ফাড়ী পুলিশের এ এস আই আনিস মৃত হারুন মিয়ার পাসপোর্ট এবং লাশের ছবি নিয়ে হাজির হয় কাকিয়ার চর গ্রামে। পাসপোর্টের ঠিকানা এবং হারুন মিয়ার পরিবারের সাথে কথা বলে নিশ্চিত হন। তিনি জানান মৃত হারুন মিয়ার লাশ গাজিপুর জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার চন্দ্রা নামক এলাকার মর্ডান হাসপাতালে রয়েছে। গতরাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। লাশের সাথে থাকা পাসপোর্টের সুত্র ধরে হাসপাতাল কতৃপক্ষ স্থানীয় থানায় খবর দিলে বুড়িচং থানায় বিষয়টি জানানো হয়।

মৃত হারুন মিয়া দীর্ঘদিন সৌদী আরবে ছিলেন। এলাকায় দেনাদারদের চাপে বাড়ি থেকে না বলে চলে যায় এরপর পরিবারের কারো সাথেও কোন যোগাযোগ ছিলো না। নিহতের লাশ বাড়িতে আনার জন্য তার চাচাত ভাই গাজীপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন বলে জানায় তিনি। মৃত হারুন মিয়া ২ মেয়ে ও এক পুত্র সন্তানের জনক।

আরও পড়ুন