কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,১ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৬ আশ্বিন, ১৪২৭ | ১৩ সফর, ১৪৪২

কুমিল্লায় কচুরিপানায় ভরা শত বছরের পুরনো গোত্রশাল দিঘি

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট সদরের শত শত বছরের পুরনো গোত্রশাল বিশাল দিঘিটি ভরে গেছে কচুরিপানায়। দিঘির তিন পারে নির্মিত বসতবাড়ির বিভিন্ন ধরনের আবর্জনা ফেলার কারণে দূষিত হচ্ছে পানি। পাশাপাশি বাড়ছে মশার উপদ্রব, নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ ও ছড়াচ্ছে রোগজীবাণু। অপরদিকে হারিয়ে যাচ্ছে দিঘির বৈচিত্র্য-সৌন্দর্য।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, গোত্রশাল দিঘিটি নাঙ্গলকোট উপজেলার কয়েকটি দিঘির মধ্যে সবচেয়ে বড় দিঘি। একসময় এই দিঘিতে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ ও বড়শি (মাছ ধরা) প্রতিযোগিতা হতো। উপজেলরা দুরদুরান্ত থেকে লোকজন গোসল করতে আসত। বৃটিশ শাসন আমলে বিশাল আকৃতির দিঘির উপর দিয়ে রেল লাইন গিয়ে দুই ভাগ হয় এ দিঘি। বিভিন্ন এলাকা তেকে প্রতিদিন অনেক দর্শনার্থী আসত এখানে ঘুরার জন্য। কালের ক্রমে হারিয়ে গেছে দিঘির ঐতিহ্য। এখন শুধুই স্মৃতি?

তারা আরো বলেন, প্রায় ৩০ বিঘা জায়গা নিয়ে এ দিঘি খনন করা হয়। বর্তমানে দিঘির পানি বসতবাড়ির ময়লা-আবর্জনা ফেলার কারণে বিবর্ণ হয়ে গেছে। দিঘিটি সংরক্ষণ করা না গেলে একদিন ময়লা-আবর্জনায় পানি বিষাক্ত হয়ে পড়বে। ভরাট হয়ে যাবে পুরো দিঘি।

এ বিষয়ে পৌর মেয়র আব্দুল মালেক বলেন, বিশাল আকৃতির এ গোত্রশাল দিঘিটি এখন কচুরিপানায় ভরপুর। যার কারণে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। তাই দিঘিটি দ্রুত সময়ের মধ্যে পরিষ্কার করে মাছ চাষ ও সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য কাজ করা হবে।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার দাউদ হোসেন চৌধূরী নতৃন কুমিল্লাকে জানান, শত বছরের পুরোন এ দিঘিটি কচুরিপানায় ভরে যাওয়া পরিবেশের ক্ষতি হচ্ছে। তাই সংস্কারের জন্য কৃর্তপক্ষকে জানানো হবে।

আরও পড়ুন