কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,৬ মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২৩ বৈশাখ, ১৪২৮ | ২৩ রমজান, ১৪৪২

শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে রাজনৈতিক দলের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ

শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য রাজনৈতিক দলের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন আয়োজন করতে নির্বাচন কমিশন, সরকার ও প্রশাসনের পাশাপাশি রাজনৈতিক দলগুলোর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। এক্ষেত্রে সাধারণ জনগণকে সচেতন হতে হবে এবং সহযোগিতা করতে হবে। এ পর্যন্ত নির্বাচন কমিশন, সরকার ও প্রশাসন আন্তরিকতার সাথে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আয়োজনের জন্য কাজ করছেন, বিশেষ করে সন্তোজনক ভূমিকা রাখছে নির্বাচন কমিশন। সকল রাজনৈতিক দল সোহার্দপূণ আচরণ করলে একাদশ সংসদ নির্বাচন হবে স্মরণীয়। “ইলেকশন মনিটরিং ফোরাম” আয়োজিত নির্বাচন পর্যবেক্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন সংগঠনের নির্বাহী পরিচালক ও “সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন” এর মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা মোহাম্মদ আবেদ আলী।

কুমিল্লা জেলা জুড়ে একাশদ নির্বাচনের সব খবর জানুন এক ক্লিকে

শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) সকাল ১১ টায় ঢাকা জাতীয় প্রেস ক্লাবে পর্যবেক্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। প্রধান আলোচক ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা বিচারপতি সিকদার মকবুল হক। উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের সভাপতি- বিচারপতি মো. আব্দুস সালাম। সভায় বক্তারা আরো বলেন, ইলেকশন মনিটরিং ফোরামে সম্পৃক্ত নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নিবন্ধিত ২৫টি সংগঠন ও ২৬টি এনজিও সংস্থার বিপুল সংখ্যক পর্যবেক্ষকের সাথে ভারত, নেপাল, ভূটান, শ্রীলংকা, মালেশিয়া, জাপান, কানাডা, অস্ট্রেলিয়াসহ বিভিন্ন দেশের বিদেশি পর্যবেক্ষক দল নির্বাচনের দিন মাঠে থাকবে।

কোন পর্যবেক্ষক সংস্থা রাজনৈতিকভাবে প্রভাবিত হয়ে কাজ করলে তা পর্যবেক্ষক সংস্থার জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক। পর্যবেক্ষণ করতে হবে সত্য ও নিষ্ঠার সাথে, সঠিক ও বাস্তব চিত্র তুলে ধরতে হবে। নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হয় এমন কোন আচরণ বা বিবৃতি পর্যবেক্ষকরা দিতে পারবে না। কোন প্রকার কারচুপি বা অনৈতিক কাজ দৃষ্টি গোচর হলে তা প্রিজাইডিং অফিসার ও নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করার জন্য সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে দ্রæত জানাতে হবে। মো. জাহেদ হোসেনের সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম, স্বাগত বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের আহবায়ক ও আসক ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক মো. শামসুল হক, বিবি আছিয়া ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক মো. মনির হোসেন। এ

সময় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট সায়েম রতন, সুলতানা রাজিয়া শিলা, খন্দকার ফারুক আহমেদ, মো. জাকির হোসেন, আফরোজা আক্তার মঞ্জু, গোলাম রাব্বানী, জসিম উদ্দীন আহমেদ জাহাঙ্গীর, নুরুজ্জামান আকন্দ, নজরুল ইসলাম, গোলাম কিবরিয়া, এ আর এম মামুন, মো. মুরাদ নবী, মো.জহিরুল ইসলাম মজুমদার, কাজী শাখাওয়াত হোসেন শরীফ, কাজী মহি উদ্দীন মুকুল, আফজাল হোসেন মিয়াজী, মোফাজ্জল হোসেন প্রমুখ।

আরও পড়ুন