কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
১২ ফাল্গুন, ১৪২৭ | ১১ রজব, ১৪৪২

লাকসাম-মনোহরগঞ্জে মসজিদে মসজিদে মিলাদ ও শোকরানা দোয়া:

তাজুল ইসলাম মন্ত্রী হওয়ার খবরে কুমিল্লায় আনন্দের জোয়ার: মিষ্টি বিতরণ

কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসন থেকে নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য মোঃ তাজুল ইসলাম নবগঠিত মন্ত্রী পরিষদে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের (এলজিআরডি) মন্ত্রী হওয়ার খবরে লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ উপজেলাজুড়ে নেতা-কর্মী ও জনসাধারণের মাঝে আনন্দের জোয়ার বইছে। রবিবার বিকেলে বাদ আছর মসজিদে মসজিদে মিলাদ ও শোকরানা দোয়া পড়ানো হয়। মুসুল্লিদের খাওয়ানো হয় মিষ্টি।

এছাড়াও দু’উপজেলার সর্বত্রে নেতা-কর্মীদের মাঝে মিষ্টি বিতরণের হিড়িক পড়ে। একপর্যায়ে দোকানেরও মিষ্টি ফুরিয়ে যায়। এ প্রথমবারের মতো এ আসনে মন্ত্রী পাওয়ায় দল-মত নির্বিশেষে সাধারন মানুষের মাঝে বইছে খুশীর আমেজ।

লাকসাম পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক অধ্যাপক মোঃ আবুল খায়ের নতুন কুমিল্লাকে জানান, এমপি মোঃ তাজুল ইসলাম এলজিআরডি মন্ত্রী হওয়ায় আমাদের দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ এক সময় অবহেলিত ছিল। মনোহরগঞ্জকে এক সময় জলাঅঞ্চল বলা হতো। এমপি তাজুল ইসলামের হাতের ছোঁয়ায় অভূতপূর্ব উন্নয়নের ফলে এ এলাকার চিত্রই পাল্টে গেছে। মানুষ এখন বর্ষা মওসুমেও গাড়ি নিয়ে যাতায়াত করতে পারে।

মোঃ তাজুল ইসলাম এলজিআরডি মন্ত্রী হওয়ায় সারাদেশে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হবে। তাঁর হাতের ছোঁয়ায় পুরো দেশের চেহারা পাল্টেযাবে। আর আমাদের এ এলাকায়ও আরো বহুগুণ উন্নয়ন সাধিত হবে ইনশাআল্লাহ। এমপি মোঃ তাজুল ইসলামকে মন্ত্রী পরিষদের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়ায় লাকসামের জনসাধারণের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই।

তিনি আরো বলেন, দশম সংসদে মোঃ তাজুল ইসলাম বিদ্যুৎ ও জ্বালানী মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হিসেবে তাঁর মেধা ও যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁকে মূল্যায়ন করেছেন। তাঁকে এলজিআরডি মন্ত্রী করেছেন। বঙ্গবন্ধু কণ্যা শেখ হাসিনা উন্নত বাংলাদেশের যে স্বপ্ন দেখছেন, আমাদের প্রত্যাশা মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি তাঁর মেধা ও প্রজ্ঞার মাধ্যমে সে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করবেন। এ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে তিনি সারা দেশের উন্নয়নে সক্ষম হবেন।

এদিকে, ওইদিন দুপুরের পর তাজুল ইসলামের মন্ত্রী হওয়ার খবর পেয়ে উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্র, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মাঝে আনন্দের জোয়ার বয়ে যায়। নেতা-কর্মীরা পরস্পরকে মিষ্টি খাওয়াতে থাকে। উৎসবের এ মিছিলে যোগ দেয় সাধারণ মানুষও।

উল্লেখ্য, মোঃ তাজুল ইসলাম কুমিল্লা-৯ আসনে হ্যাট্রিকসহ ৪ বার এমপি নির্বাচিত হন। তিনি কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও লাকসাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। মোঃ তাজুল ইসলাম ১৯৯৬ সালে প্রথম বারের মতো এ আসনে আওয়ামীলীগের সংসদ সদস্য হিসেবে বিজয়ী হন। এরপর তিনি ২০০৮, ২০১৪ ও সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী টানা ততৃীয়বারসহ চতুর্থবার এ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

আরও পড়ুন