কুমিল্লা
শনিবার,২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
১৪ ফাল্গুন, ১৪২৭ | ১৪ রজব, ১৪৪২

লিসবনে পর্তুগিজ ভাষা শিক্ষা কোর্সের উদ্বোধন করলেন বাংলাদেশিরা

পর্তুগাল মাল্টিকালচারাল একাডেমী (PMAA) এর উদ্যোগে পর্তুগিজ ভাষা, সংস্কৃতি ও ইতিহাস শিক্ষা কোর্স শুরুর প্রকৃিয়া সম্পূর্ণ হয়েছে। এই উপলক্ষে গতকাল সন্ধ্যায় লিসবনের বাংলাদেশী অধ্যুষিত এলাকা, তাদের নিজস্ব ক্যম্পাসে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সাংবাদিক রাসেল আহম্মেদের সঞ্চালনায় এবং মোঃ সম্রাট এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবনের দ্বিতীয় সচিব হাসান আবদুল্লাহ তহিদ, দূতাবাসের প্রাশাসনিক কমকর্তা সামিউল হক, বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব রানা তসলিম উদ্দিন, জাহাঙ্গীর আলম, আবুল কালাম আজাদ, আব্দুল খালেক, কবি কামাল, শাহিন সায়ীদ, মোঃ ইকবাল ভূঁইয়া, শাহাদাৎ হোসেন, মোঃ রাসেল, লিটন কাদেরী, মনজুরুল হোসেন জিন্নাহ, আশরাফুল ইসলাম হাসিব , নজরুল ইসলাম সুমন, মোঃ শাহজাহান, জাহিদ কায়সার, মোহাম্মদ সাত্তার প্রমুখ।

উল্লেখ আগামী ১৪ জানুয়ারি ২০১৯ থেকে এই কোর্স আরম্ভ হবে যেখানে লেভেল এ ১ এবং এ ২ সমমানের সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে।

কোর্সটি পর্তুগাল সরকার কর্তৃক অনুমোদিত এবং পর্তুগিজ পাসপোর্ট বা নাগরিকত্ব লাভের জন্য প্রযোজ্য ও অপরিহার্য। কোর্সের সময়কাল – ১৫০ ঘন্টা বা ৬/৭ সপ্তাহ দীর্ঘ হবে।

এর উদ্যোক্তা বলেন, এই ভাষা সাটির্ফিকেট কোর্সটি সকলের জন্য বাধ্যতামূলক। পর্তুগিজ নাগরিকত্ব আবেদনের পূর্ব শর্ত হলো এই বিশেষ সাটির্ফিকেট। আগে যা অত্যন্ত সময় সাপেক্ষে এবং জটিলতা পূর্ণ ছিল। কারন বছরে মাত্র একটি বা দুটি কোর্স সরকারি ভাবে করানো হতো।

কিন্তু এখন থেকে অত্যন্ত সল্প সময়ে এই কোর্সটি সম্পূর্ণ করতে পারবে বাংলাদেশী সহ বিশ্বের সকল দেশের অভিবাসন প্রত্যাশীরা। প্রতি মাসে ভিন্ন ভিন্ন সময় অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা তাদের কোর্সটি সম্পূর্ণ করতে পারবে।

বক্তারা এই উদ্যোগের প্রশংসা করে বলেন, এটি আমাদের কমিউনিটির সম্মান ও মর্যাদা বৃদ্ধি করবে বিদেশের মাটিতে। কেননা এটির ফলে এখন থেকে যেকোন দেশের অভিবাসীরা পর্তুগিজ ভাষা শিক্ষা কোর্সটি সহজে সম্পূর্ন করতে পারবে। বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবন সকল ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন এর উদ্যোক্তাদেরকে। নৈশভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

আরও পড়ুন