কুমিল্লা
শনিবার,২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১১ আশ্বিন, ১৪২৭ | ৮ সফর, ১৪৪২

কুমিল্লায় ধর্ষণে শিকার সেই স্কুল ছাত্রী সন্তান জন্ম দিয়ে …

ফাইল ছবি

কুমিল্লার হোমনায় ধর্ষণের শিকার ৪র্থ শ্রেণির সেই ছাত্রী সন্তান জন্ম দিয়ে মৃত্যুবরণ করেছে। বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) হাসপাতাল থেকে আছাদপুর ইউনিয়নের নিজ বাড়ি চারকুড়িয়া গ্রামে নেয়ার সময় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এলাকায় নিন্দার ঝড় উঠেছে। আগে থেকেই কারাগারে আছে ধর্ষক। আর ওই মেয়ের মৃত্যুর পর ধর্ষকের পরিবার জনরোষের ভয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, বুধবার এ ধর্ষিতার প্রসব বেদনা উঠার পর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে সিজার অপারেশনে তার একটি পুত্রসন্তানের জন্ম হয়।

পরদিন ভোরে তাকে নিয়ে কুমিল্লার উদ্দেশে রওনা দেয় তার পরিবার। এ সময় পথে তার মৃত্যু হয়। তবে সন্তানটি এখনও জীবিত। বৃহস্পতিবার বিকালে চারকুড়িয়া কবরস্থানে ওই কিশোরীকে দাফন করা হয়েছে।

থানা ও পারিবারিক সূত্র জানায়, উপজেলার চারকুড়িয়া গ্রামের মো. তছর মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন একই গ্রামের ৪র্থ শ্রেণির ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় গত বছরের আগস্টে ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে হোমনা থানায় ধর্ষণের মামলা করেন। পরে এলাকার লোকজন জাকিরকে আটক করে পুলিশে দেয়। বর্তমানে সে জেলহাজতে রয়েছে।

এ বিষয়ে আছাদপুর ইউনিয়নের ওয়ার্ড মেম্বার মো. শিব্বির আহম্মেদ বলেন, আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এবং উপযুক্ত বিচার দাবি করছি।

হোমনা থানার ওসি সৈয়দ মো. ফজলে রাব্বী বলেন, ঘটনাটি টেলিফোনে জেনেছি, থানায় মামলা রয়েছে। আসামিও জেলে আছে। মেয়েটির পরিবারকে বলেছি থানায় একটি জিডি করে ময়নাতদন্ত করতে।

আরও পড়ুন