কুমিল্লা
সোমবার,২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৩ আশ্বিন, ১৪২৭ | ৯ সফর, ১৪৪২

ফলোআপ:

কুমিল্লায় চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্র হত্যার রহস্য উদঘাটন

নিহত জয় চন্দ্র ঘোষ/ ফাইল ছবি

কুমিল্লার দেবিদ্বারের বরকামতায় ইউনিয়নের ঘোষবাড়ির কালিমন্দিরের পাশে আলোচিত স্কুলছাত্র জয় চন্দ্র ঘোষকে (১৫) হত্যার পর মাটিচাপা দেওয়ার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। ঘটনার সঙ্গে জড়িত দূর্জয় চন্দ্র দাস (১৩) নামে এক কিশোরকে আটক করে দেবিদ্বার থানা পুলিশ। সে দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে। অভিযুক্ত দূর্জয় চন্দ্র দাস একই বাড়ির শিতল চন্দ্র দাসের পুত্র।

নিহত জয় চন্দ্র ঘোষ উপজেলার নবিয়াবাদ গ্রামের অমর চন্দ্র ঘোষের পুত্র। সে চান্দিনা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়’র সপ্তম শ্রেণীতে পড়ত।

অাদালতে দূর্জয় জানায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগের দিন দূর্জয় ও তার সহপাঠিদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় জয় চন্দ্র ঘোষ’র। এ শত্রুতা নির্বাচনের পরে আরও তীব্র আকারে ধারণ করে। গত ৮ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৮টার দিকে জয় চন্দ্র ঘোষকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় ঘোষবাড়ি কালিমন্দিরের কাছে। এক পর্যায়ে পিছন থেকে লাঠি দিয়ে মাথায় আঘাত করলে সঙ্গে সঙ্গে জয় চন্দ্র ঘোষ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। মৃত্যু নিশ্চিত হলে মন্দিরের পাশেই তাকে গর্ত করে মাটিতে পুতে ফেলা হয়।

হত্যাকাণ্ডের ৮দিন পর নিহতের ডান হাতের ওপর থেকে মাটি সরে যাওয়ায় স্থানীয়রা দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেন।

দেবিদ্বার থানারর বারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জহিরুল আনোয়র নতুন কুমিল্লাকে জানান, ঘটনার সাথে জড়িত দূর্জয় চন্দ্র দাস বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক হত্যার বর্ননা দিয়েছে। স্বীকারোক্তির পর তাকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করা হয়। এবং এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত বাকি আসামীদের গ্রেফতার করতে অভিযান চলছে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন