কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২৯ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ৪ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪
শিরোনাম:
কুমিল্লায় ৭১১ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিলেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন ইসলামী ব্যাংকের ফাস্ট এ্যসিসস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নাজমুলের পদোন্নতি লাভ ‘গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন তাহসিন বাহার কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক নূর উর নবী চৌধুরীর ইন্তেকাল কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ লাকসামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল গোল্ডকাপে পৌরসভা দল বিজয়ী কুসিক নির্বাচন: এক মেয়রপ্রার্থীসহ ১৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে কুমিল্লায় ঢাকা আহছানিয়া মিশনের মেলার আয়োজন কুসিকে মেয়র প্রার্থী রিফাতের নির্বাচন পরিচালনায় ৪১ সদস্যের কমিটি

নাঙ্গলকোটে ডাকাতিয়া নদীর বাঁধ নির্মাণ শুরু

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার ডাকাতিয়া নদীর বাঁধের নির্মাণ শুরু হয়েছে। এতে করে উপজেলার মৌকরা ও ঢালুয়া ইউনিয়নসহ পুরো উপজেলার প্রায় ১০ হাজার ফসলি জমির ফসল বন্যার কবল থেকে রক্ষা পাবে এমনটাই আশা করছেন এলাকাবাসী। দীর্ঘদিনের মানুষের প্রাণের দাবি এ বাঁধ নির্মাণ করা। তাও পূরণ হওয়ার পথে।

গত কয়ের বছরের বন্যায় ডাকাতিয়া নদীর উপজেলার মৌকরা ও ঢালুয়া ইউপির মোয়েশ্বহর থেকে সিলপাড় ব্রিজ পর্যন্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার বাঁধ ভেঙে যায়। এতে সমগ্র উপজেলা বন্যাকবলিত হয়েছিল। এ খবর বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় ও টিভি চ্যানেলে সংবাদ প্রকাশ করায় সাবেক পরিকল্পনা মন্ত্রী ও বর্তমান অর্থ মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল (লোটাস কামাল) এমপি এ অঞ্চল পরিদর্শন করেন।

পরে তিনি ওই অঞ্চলের মানুষের ঘর বাড়ি ও আবাদি জমিরর ফসলকে বন্যার কবল থেকে রক্ষা করার জন্য নতুন করে বাঁধ নির্মান করার জন্য কুমিল্লা পওর বিভাগ ও পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) নিদের্শ দেন।

পানি উন্নয়ন বোর্ড জরুরি বিত্তিতে ওই বাঁধটি নির্মান করার জন্য ঠিকাদার সহীদ আহম্মেদ বাবুলকে নিয়োগ করেন। যার ব্যায় ধরা হয় ৯৫ লাখ কাটা।

এ বিষয়ে মোয়েশ্বহর গ্রামের আলমাছ নতুন কুমিল্লাকে বলেন, ডাকাতিয়া নদীর জোয়ারের পানিতে বাঁধ ভেঙে সকল ফসল ডুবে ও বাড়ি ঘরে পানি উঠে যায়। যা আমাদের অনেক ক্ষতি হয়। নতুন বাঁধ নির্মাণ করায় আমরা বর্তমান সরকার ও অর্থ মন্ত্রীর কাছে কৃতগতা প্রকাশ করছি।

কৃষক লীগের নেতা ছেরাজুল হক নতুন কুমিল্লাকে জানান, এ অঞ্চলের মানুষের একটায়ে দাবি ছিল, বাঁধ নির্মাণ করা। এ সরকার কৃষি বান্ধপ সরকার, উন্নয়নের সরকার। এখন বাঁধ নির্মান কাজ চলছে যা এলাকার মানুষের দাবি পূরণ হবে।

ঠিকাদার সহীদ আহম্মেদ বাবুল বলেন, মন্ত্রী ও ডিজি মহোদয়ের নির্দেশে বাঁধটি নতুনভাবে টেকসই ও মজবুত করা হবে। এখন পর্যন্ত প্রায় ৩০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে।

উপ-বিভাগীয় নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আব্দুল লতিফ নতুন কুমিল্লাকে বলেন, ডাকাতিয়া নদীর বাঁধ নির্মাণ কাজ চলছে। সল্প সময়ের মেধ্যে বিতরে কাজ সম্পন্ন করা হবে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন