কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৯ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ১১ শাবান, ১৪৪৫
শিরোনাম:
অভি’কে সিইও হিসেবে অনুমোদন দিলো আইডিআরএ কুমিল্লায় ৭১১ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিলেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন ইসলামী ব্যাংকের ফাস্ট এ্যসিসস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নাজমুলের পদোন্নতি লাভ ‘গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন তাহসিন বাহার কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক নূর উর নবী চৌধুরীর ইন্তেকাল কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ লাকসামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল গোল্ডকাপে পৌরসভা দল বিজয়ী কুসিক নির্বাচন: এক মেয়রপ্রার্থীসহ ১৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে কুমিল্লায় ঢাকা আহছানিয়া মিশনের মেলার আয়োজন

উন্মুক্ত দরপত্র মাধ্যমে সরকারি ক্রয় হবে : অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল / ফাইল ছবি

সরকারি ক্রয়ের ক্ষেত্রে দুর্নীতি রোধে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতির বদলে উন্মুক্ত দরপত্র আহবান করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বুধবার (২৩ জানুয়ারি) সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে গণমাধ্যমের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।

বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সরকারি ক্রয়ে দুর্নীতি রোধে সরকারের পরিকল্পনার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা চেষ্টা করছি সরকারি ক্রয়ের ক্ষেত্রে দুর্নীতি কিভাবে রোধ করা যায়। আজকের বৈঠকে সে বিষয়টি গুরুত্ব পেয়েছে। এখন থেকে দুর্নীতি রোধে সরাসরি ক্রয় পদ্বতি বদলে উন্মুক্ত দরপত্র আহবান করা হবে।

মুস্তফা কামাল বলেন, আজকে অর্থনীতি বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের নীতিগত অনুমোদনের জন্য একটি প্রস্তাব এসেছেলো। কিন্তু প্রস্তাবটির অনুমোদন দেয়া হয়নি।

তিনি বলেন, পানি নিষ্কাশনের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছি। এসব প্রকল্পগুলো একনেকে অনুমোদনের সময় বাস্তবায়নের জন্য উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতি অবলম্বন করার শর্ত ছিলো। তারপর বাস্তবায়নকারি প্রতিষ্ঠান যদি মনে করে কাজটা যদি উন্মুক্ত দরপত্রে মাধ্যমে করা হয় তাহলে দেরি হবে। কারণ মটর আছে, পাম্পসহ বিভিন্ন ধরনের কম্পোনেন্ট আছে এগুলো আলাদা আলাদা করা হলে এখানে ইন্ট্রিগেশনের অভাব থাকবে। একটি সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে কাজটি সম্পূর্ণ হবে না। এতে করে আমাদের সময় বেশি লাগতে পারে।

আরও পড়ুন