কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,১ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৬ আশ্বিন, ১৪২৭ | ১৩ সফর, ১৪৪২

বেরোবিতে সাংবাদিক মারধরের ঘটনায় কুবিসাসের নিন্দা

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (বেরোবিসাস) কোষাধ্যক্ষ ও দৈনিক সংবাদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি আল আমীন হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক ও দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সৌম্য সরকারকে মারধরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন ‘কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি’ (কুবিসাস)।

গনমাধ্যম সুত্রে জানা যায়, হামলাকারীরা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী।
দুই সাংবাদিককে মারধরের ঘটনার সাথে জড়িত ছাত্রলীগ কর্মীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মোঃ মতিউর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহিদুল ইসলাম।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) এক যৌথ বিবৃতিতে তারা বলেন, গত মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মুখতার এলাহী হলে নিজেদের বৈধ সিটে উঠতে গেলে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল হাসান জয়ের নেতৃত্বে এই দুই সাংবাদিককে মারধর করে ছাত্রলীগের কতিপয় নেতাকর্মী।

এ ধরনের ন্যাক্কারজনক নির্যাতন ও মারধরের ঘটনায় সাংবাদিকতার মত একটি স্বাধীন ও মুক্ত পেশা হুমকির সম্মুখীন বলে সাংবাদিক নেতারা মনে করেন। বাংলাদেশে সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করা, পেশাগত কাজে বাধা দেওয়া, হুমকি প্রদান করা আজ নতুন নয়। এরূপ কর্মকান্ড সাংবাদিকতা তথা গণমাধ্যমের স্বাধীনতার উপর নগ্ন আঘাত।

বিবৃতিতে তারা আরও বলেন, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকের উপর ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠনের নেতা-কর্মীদের হামলা নিন্দনীয়। অপরাধীর পরিচয় যেমন ভিন্ন কিছু হতে পারে না তেমনি এ অপরাধীরা পার পেয়ে যেতে পারে না। অবিলম্বে এসব দোষীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন সাংবাদিক নেতারা।

আরও পড়ুন