কুমিল্লা
রবিবার,২৯ জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
১৫ মাঘ, ১৪২৯ | ৬ রজব, ১৪৪৪
শিরোনাম:
কুমিল্লায় ৭১১ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিলেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন ইসলামী ব্যাংকের ফাস্ট এ্যসিসস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নাজমুলের পদোন্নতি লাভ ‘গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন তাহসিন বাহার কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক নূর উর নবী চৌধুরীর ইন্তেকাল কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ লাকসামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল গোল্ডকাপে পৌরসভা দল বিজয়ী কুসিক নির্বাচন: এক মেয়রপ্রার্থীসহ ১৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে কুমিল্লায় ঢাকা আহছানিয়া মিশনের মেলার আয়োজন কুসিকে মেয়র প্রার্থী রিফাতের নির্বাচন পরিচালনায় ৪১ সদস্যের কমিটি

চৌদ্দগ্রামে ভয়াবহ আগুনে তিন বসতঘর পুড়ে ছাই

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ভয়াবহ আগুনে মুহুর্তের মধ্যেই তিন বসতঘর পুড়ে ছাই হয়েছে। এতে ঘরের ঘরের ভিতর থাকা স্বর্ণালঙ্কার ও প্রয়োজনীয় আসবাবপত্রসহ প্রায় ১৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়েছে বলে দাবি করেছেন ভুক্তভোগীরা।

উপজেলার গুণবতী ইউনিয়নের চাঁপাচৌ গ্রামের সাবেক মেম্বার আমানত হোসেনের বাড়িতে শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া একই রাতে পাশ্ববর্তী পরিকোট গ্রামে আবুল হোসেন ড্রাইভারের দোকান পুড়ে লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার সময় চাঁপাচৌ গ্রামের ওই বাড়ির ইসমাইল হোসেন মানিকের ঘর থেকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সুত্রপাত হয়। খবর পেয়ে গ্রামবাসী ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। কিন্তু মুহুর্তের মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখায় মানিকের দুইটি টিনশেড বসতঘর ও সাবেক মেম্বার আমানত হোসেনের ভাড়া দেয়া ঘর পুড়ে যায়। আগুনে মানিকের দুই ঘরের সব মালামাল পুড়ে যাওয়াসহ আমানত হোসেনের ঘরের অধিকাংশই পুড়ে যায়। আগুনে আহত হয় মানিকের মাতা ছেমনা বেগম। বর্তমানে খোলা আকাশের নিচে বাস করছেন মানিক মিয়ার বয়স্ক মা ছেমনা বেগম, স্ত্রী, ছোট ভাইয়ের স্ত্রী ও ছেলে-মেয়েরা। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ আহাম্মদ ভুঁইয়া খোকনসহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ।

শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, বৃদ্ধা ছেমনা বেগম নিঃস্ব হয়ে অসহায় চোখে তাকিয়ে আছে মমতায় গড়া ঘরগুলোর দিকে। তাকে স্বান্তনা দেয়ার ভাষা কারো জানা নেই। তিনিসহ ভুক্তভোগীরা সরকারের নিকট সহযোগিতা চেয়েছেন নতুন করে ঘর নির্মাণের জন্য।

আরও পড়ুন