কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,২৪ জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
১০ আষাঢ়, ১৪২৮ | ১৩ জিলকদ, ১৪৪২

ফের কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বাসে হামলা; আটক তিন

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) বাস এস আলম স্টিল ফ্যাক্টরির শ্রমিক ও স্থানীয় এক মেম্বারের হামলায় বাস চালক ও এক শিক্ষার্থীসহ ৩ জন আহত হয়েছেন। সােমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কােটবাড়ি বিশ্বরােড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন, স্থানীয় মেম্বার শাহ আলম, এস এ এস রড ফ্যাক্টরির জিএম ইঞ্জিনিয়ার ফয়েজ আহমদ ও স্থানীয় এক ব্যবসায়ি।

কুমিল্লা কােতায়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস সালাম নতুন কুমিল্লাকে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিআরটিসি পরিবহনের ৭ নাম্বার বাস ক্যান্টমেন্ট থেকে ক্যাম্পাসের দিকে আসার পথে কােটবাড়ী বিশ্বরােড আসলে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় মেম্বার শাহ আলম ও এস.আলম স্টীল ফ্যাক্টরির শ্রমিকরা মিলে হামলা করে। তখন বাসের চালক জসিম আকন্দকে (৩৩) হকিস্টিক এবং ইট দিয়ে মারতে থাকে। এক পর্যায়ে বাসে থাকা শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করলে তাদের ওপরও চড়া হয় সন্ত্রাসীর। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবম ব্যাচর শিক্ষার্থী আকবর হাসনসহ আরও দুইজন আহত হয়।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে বিক্ষােভ ও মহাসড়ক অবরােধ করতে গেলে বিচারের আশ্বাস দিয়ে তাদেরকে মাঝ পথ থেকে ফিরিয়ে আনা হয়। এসময় তারা প্রশাসনের কাছে ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানান।

আহত বাস চালক জসিম আকন্দ বলেন, কোন কারণ ছাড়াই তারা হঠাৎ করে আমাকে মারধর শুরু করে। এতে আমার হাতসহ শরীরের বিভিন অঙ্গে মারাতক জখম পেয়েছি।

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগর সভাপতি ইলিয়াস হােসেন সবুজ নতুন কুমিল্লাকে বলেন, বিশ্বিবিদ্যালয়ে এমন ঘটনা বারবার ঘটছে। যদি এমন ঘটনার আবার পুনরাবত্তি হয় তাহলে শাখা ছাত্রলীগ সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিয়ে কঠাের আন্দোলন যাব।

বিশ্ববিদ্যালয়র প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন নতুন কুমিল্লাকে বলেন, বাসে হামলার ঘটনায় এরই মধ্যে তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। উপাচার্য স্যারের সাথে কথা বলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে মামলা করা হবে।

উল্লেখ্য, এর আগেও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে কুমিল্লা সরকারি কলেজ ও ভিক্টােরিয়া কলেজ শাখা ছাত্রলীগ হামলা করে। এসব ঘটনায় প্রশাসনের পক্ষে থেকে মামলা করা হলেও কোনা বিচার হয়নি।

আরও পড়ুন