কুমিল্লা
রবিবার,২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১২ আশ্বিন, ১৪২৭ | ৯ সফর, ১৪৪২

কুমিল্লায় বিজিবির সঙ্গে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের গোলাগুলি

প্রতীকী ছবি

কুমিল্লায় বিজিবির সঙ্গে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের গোলাগুলি হয়েছে। এ ঘটনায় মোঃ হারুন (৩৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসাপালে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে বিজিবি সদস্যরা বিপুল পরিমান ইয়াবাট্যাবলেট জব্দ করে। মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভোরে জেলার বুড়িচংয়ের জামতলা আদর্শগ্রাম (পাঁচ পিলার) নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিজিবির সুলতানপুর ব্যাটালিয়ন (৬০ বিজিবি) এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ ইকবাল হোসেন নতুন কুমিল্লাকে তথ্যটি নিশ্চিত করে জানান, ২৫ ফেব্রুয়ারি আনুমানিক পৌনে তিনটার দিকে উপজেলার বড়জ্বালা বিওপি’র টহলদল কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার পূর্ব কোটেশ্বর নামক স্থান হতে আমড়াতলী গ্রামের মৃত মোহনের ছেলে মোঃ হারুনকে (৩৫) সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরা করায় আটক করা হয়।

পরে তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়, বিপুল পরিমানে ইয়াবা ট্যাবলেট মঙ্গলবার ভোর রাতে জেলার বুড়িচংয়ের জামতলা আদর্শগ্রাম (পাঁচ পিলার) নামক এলাকার সীমান্ত মেইন পিলার-২০৬৬/৭-এস এর নিকট দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। এ তথ্যের ভিত্তিতে বড়জ্বালা বিওপির’র সুবেদার মোঃ জহুরুল ইসলাম এবং খারেরা বিওপি’র হাবিলদার মোঃ খলিলুর রহমান এর নেতৃত্বে যৌথ টহলদল মাদক ব্যবসায়ি মোঃ হারুনকে নিয়ে ঘটনা স্থলে অবস্থান করে।

ভোর রাতে চোরাকারবারী মাদক ব্যবসায়ীরা জিবিবির টহল দলের উপস্থিতি টের পেয়ে অতর্কিতভাবে গুলিবর্ষণ করতে থাকে। এই সুযোগে আটককৃত মোঃ হারুনও টহলদল হতে বিচ্ছিন্ন হয়ে চোরাকারবারীদের সাথে যোগ দেয়। এ সময় অাত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়।

এ ঘটনায় মাদক কারবারী মোঃ হারুনের ডান পায়ের হাঁটুর নীচে গুলিলাগে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় টহলদল তাকে আবারও আটক করে চিতিৎসার জন্যে প্রথমে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল হতে ২ হাজার ২৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় বিজিবি বাদী বুড়িচং থানায় মামলা দায়ের করেছে বলে অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ ইকবাল জানান।

আরও পড়ুন