কুমিল্লা
শনিবার,২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১১ আশ্বিন, ১৪২৭ | ৮ সফর, ১৪৪২

জমজমাট কুমিল্লা টাউন হল মাঠে এসএমই পন্য মেলা

ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্যের প্রচার, প্রসারে কুমিল্লায় আয়োজন করা হয় এসএমই পন্য মেলার। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার কুমিল্লা টাউন হল মাঠে বেলুন ও সাদা পায়রা উড়িয়ে এই মেলার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি বার্ডের মহাপরিচালক ড. এম মিজানুর রহমান (অতিরিক্ত সচিব)। কুমিল্লা এসএমই ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত এ মেলা চলবে ৬ মার্চ পর্যন্ত। ইতো মধ্যে কুমিল্লা জুড়ে মেলাটি ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, এবার এসএমই পণ্য মেলা বেশ জমজমাট। সকাল থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা প্রাঙ্গনে ছোট-বড়, নারী-পুরুষসহ সব বয়সি ও শ্রেণী-পেশার মানুষের বিপুল সমাগম ঘটে। বাজার তুলনায় মেলায় পণ্যের দাম কম হওয়ায় ক্রেতারাও বেশ খুশি। এদিকে পণ্য বিক্রয় করতে পেরে খুশি দোকানিরাও।

মেয়েদের কসমেটিকস্, বিভিন্ন ধনের পোষাক, কুটির শিল্প, নকশি কাঁথা, প্রাকৃকিত উপায়ে সংগ্রহকৃত মধু, ঘর সাজানো শো-পিস, ফার্নিচার, হরেক রকমের আচার ও নকশি পিঠাসহ বিভিন্ন ধরনের পণ্য পাওয়া যাচ্ছে এই মেলায়। তাই সৌখিন ও রুচিশীলদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে কুমিল্লা টাউন হল মাঠে আয়োজিত মেলা প্রাঙ্গণ।

সাদিয়া বুকিস হাউজের স্বত্তাধীকারি মাকসুদা আক্তার লিপি নতুন কুমিল্লাকে জানান, কুমিল্লায় এসএমই মেলা সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। বিশেষ করে প্রতিদিন দুপুরে পর থেকে মেলা প্রাঙ্গণ ক্রেতা সাধারণের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে। অন্যবারের তুলনায় এবার মেলায় বিক্রিও হচ্ছে বেশি। হাতের তৈরি নান্দনিক বিভিন্ন প্রকার পন্য এবং তুলমুলক এসব পণ্যের দাম কম হওয়ায় ক্রেতারাও ক্রয় করছেন মনের আনন্দে।

মেলায় আসা খাদিজা আক্তার নামে এক ক্রেতা নতুন কুমিল্লাকে জানান, এবার মেলায় নিত্যনতুন জিনিসপত্র পাওয়া যাচ্ছে। দামও সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে। বিশেষ করে বাহারি ডিজাইনে মেয়েদের বুটিকের জামা, ফতুয়া পাওয়া যাচ্ছে কম দামে।

এ ছাড়াও ঘর সাজানো শো-পিস থেকে শুরু করে নানা রকম পন্য রয়েছে এই মেলায়। প্রত্যশার সাথে প্রাপ্তির মিল ঘটনায় মহা খুশি এই নারী। তাই নিজের এবং পরিবারে সদস্যদের জন্য ক্রয় করেছেন অনেক পন্য।

আরও পড়ুন