কুমিল্লা
মঙ্গলবার,৫ জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
২১ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৫ জিলহজ, ১৪৪৩
শিরোনাম:
‘গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন তাহসিন বাহার কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক নূর উর নবী চৌধুরীর ইন্তেকাল কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ লাকসামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল গোল্ডকাপে পৌরসভা দল বিজয়ী কুসিক নির্বাচন: এক মেয়রপ্রার্থীসহ ১৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে কুমিল্লায় ঢাকা আহছানিয়া মিশনের মেলার আয়োজন কুসিকে মেয়র প্রার্থী রিফাতের নির্বাচন পরিচালনায় ৪১ সদস্যের কমিটি বিএনপি থেকে সাক্কুর পদত্যাগ কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে ৬ মেয়রসহ ১৫৪ প্রার্থীকে বৈধ ঘোষণা

মা দিবসে কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর তার মাকে নিয়ে যা বললেন

কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর। ফাইল ছবি

মা দিবসে মায়েদের অলৌকিক ক্ষমতা থাকা নিয়ে নিজের মুগ্ধতার কথা জানালেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর। রবিবার (১২ মে) দুপুরে দেয়া এক স্টাটাসে তিনি লিখেছেন, আমার বিশ্বাস আমার মায়ের কোনো অলৌকিক ক্ষমতা আছে!

উদাহরণ টানতে গিয়ে সাদাত হোসাইনের লেখা থেকে কয়েকটি টুকরো ঘটনা নতুন কুমিল্লার পাঠকদের জন্যে তুলে ধরা হলে…

লিখেছেন, ফুটবল খেলতে যাবো। পায়ে পরার ছোট্ট এইটুক এক এংকলেট। সারাঘর খুঁজে তন্নতন্ন। নেই! আম্মা কাজে ব্যস্ত। আমার চিৎকার, ‘আম্মা, ও আম্মা, এংকলেটটা কই?’
আম্মা- ‘দ্যাখ, ওইহানেই আছে’।

কোনখানে আছে?
ঘরেই আছে। আল্লায় চোউখ দিছে ক্যান? চোউখ দুইখান মেইল্যা দেখ।
সারাঘর তন্নতন্ন কইরা খুঁজলাম, পাইনা। ও আম্মা, আম্মা! আম্মা আ আ আ!

আম্মা ঘরে আসলেন। তারপর কি করলেন কে জানে, এংকলেটখানা ভোজবাজির মতন তার হাতে! তিনি সেটা আমার হাতে দিতে দিতে বললেন, ‘নিজের জিনিষ নিজেই জানসনা কই রাখস! আর কাজের সময় খালি আম্মা আম্মা…!

আমি হতভম্ব চোখে তাকিয়ে থাকি, ‘ইজ শি অ্যা ম্যাজিশিয়ান?

ভাত খেতে বসেছি। ডিম ভাজি আর ডাল। সমস্যা হচ্ছে ডিম একটা। কিন্তু আমরা দুইভাইই আস্ত একটা ডিম ছাড়া ভাত খাবনা। এই নিয়ে তুমুল কুরুক্ষেত্র! আম্মা নানান কিছু বোঝালেন, কিন্তু কাজ হলনা! যুদ্ধ বরং বাড়ল। আম্মা গজগজ করতে করতে ডিম নিয়ে বেরিয়ে গেলেন।
কিন্তু ফিরলেন দুখানা আস্ত ভাজা ডিম নিয়ে!

তারপর পাতে তুলে দিতে দিতে গর্জালেন, ‘তোরা দুইডা, তোরা দুইডা আমার হাড় জ্বালাই খাবি। এই সংসার ছাইড়্যা আমি যাইমু গিয়া! আর পারিনা, আমি আর পারমুনা! দেখমু তোগো কোন মায় আইস্যা প্রত্যেক বেলায় কোর্মা পোলাউ রাইন্ধা খাওয়ায়…’

আমরা হতভম্ব চোখে তাকিয়ে থাকি, ‘ ইজ শি অ্যা ম্যাজিশিয়ান?

ঈদে আব্বা ২ ভাইয়ের জন্য জামা এনেছেন। সেই জামা হয়েছে ছোট। দুইভাই তারস্বরে চিৎকার! খাওয়া-দাওয়া বন্ধ। মাটিতে গড়াগড়ি। আম্মা বারকয়েক বোঝালেন, ‘একটু ছোট হইলে কিছু হয়না’। কিন্তু আমাদের চিৎকার বাড়ে। আমরা কাঁদতে কাঁদতে ঘুমাই। ঘুম থেকে উঠে কাঁদি। কেঁদে ঘুমাই। আমাদের ভয়াবহ অভাবের সংসার।

সুতীব্র কষ্ট! আমরা জগতের ভয়াবহতম অসহায়ত্ব নিয়ে কষ্টে ডুবে থাকি। ঈদের আগের রাতে আম্মা হঠাৎ ঘুম থেকে টেনে তোলেন, তার হাতে জামা! নতুন জামা!

তারপর লাল গোলগোল চোখে হতভম্ব হয়ে তাকিয়ে থাকি, ‘ ইজ শি অ্যা ম্যাজিশিয়ান?

আরও পড়ুন