কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,১ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৬ আশ্বিন, ১৪২৭ | ১৩ সফর, ১৪৪২

কুমিল্লায় ২ বছর ধরে কিশোরীকে ধর্ষণ! অতপর …

কুমিল্লার বুড়িচংয়ে এক কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে টানা ২বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় কিশোরীর বাবা নান্নু মিয়া বাদী হয়ে কুমিল্লা আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্ত হোসেল (২০) বুড়িচং উপজেলার ভারেল্লা উত্তর ইউনিয়নের কংশনগর গ্রামের মোঃ নজির আহমেদের ছেলে।

এ ঘটানায় দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ শাহিন কাদির মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সোহেলকে গ্রেফতার করে।

মামলা বিবরণে জানা যায়, উপজেলার ভারেল্লা উত্তর ইউনিয়নের কংশনগর গ্রামের রিকশা চালক নান্নু মিয়া ঢাকা শহরে রিকশা চালাতেন। তার স্ত্রী ফরিদা আক্তার একজন মানসিক রোগী। এই সুযোগে একই গ্রামের মোঃ নজির আহমেদের ছেলে সোহেল গত দুই বছর ধরে ওই কিশোরীকে বিভিন্ন সময় সুযোগ বুঝে ধর্ষন করেছেন।

গত ২৪ এপ্রিল মধ্যরাতে সোহেল কিশোরীর ঘরে প্রবেশ করে দৈহিক সম্পর্ক করতে চায়। এসময় কিশোরী সোহেলকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। সোহেল বিয়ে করবেনা বলে জানায় এবং জোর পূর্বক ভাবে কিশোরীটিকে ধর্ষণ করে। বিষয়টি ওই কিশোরী তার বাবা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের জানান।

কিশোরীর বাবা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা সোহেলকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে বিভিন্ন ভাবে তাদেরকে ভয়-ভীতি দেখায়।

এ ঘটনায় বুধবার (১৫ মে) সকালে বুড়িচং থানা পুলিশ অভিযুক্ত সোহেলকে আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করেন।

আরও পড়ুন