কুমিল্লা
রবিবার,১৬ মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ | ৩ শাওয়াল, ১৪৪২

এবার কুমিল্লায় কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলো ছাত্রলীগ

এ বছর বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। ফসল ঘরে তুলতে গিয়ে দিনমজুর সঙ্কট ও বাড়তি মজুরির কারণে দরিদ্র কৃষকরা পড়েছেন বিপাকে। এছাড়া ধানের দাম কমে যাওয়ায় কৃষকরা লোকসানের মুখে পড়ে। ঠিক তখন দরিদ্র কৃষকদের মাঠের ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দিতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

তারই অংশ হিসেবে কুমিল্লা জেলা ছাত্রলীগ স্বেচ্ছায় কৃষকদের জমির ধান কেটে বাড়ি তুলে দেয়া হয়। এ কর্মসূচির নেতৃত্ব দেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু তৈয়ব অপি।

জেলা ছাত্রলীগ সূত্র জানায়, গত শনিবার (২৫ মে) দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু তৈয়ব অপির নেতৃত্বে জেলার ব্রাহ্মণপাড়া ও বুড়িচং উপজেলার দুই কৃষকের ৬০ শতক জমির ধান কেটে দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে ব্রাক্ষণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ ইউনিয়নের দরিয়ার পাড় গ্রামের শুক্কুর আলীর জমির ৪০ শতক এবং বুড়িচং উপজেলার বারেশ্বর গ্রামের আরেক কৃষকের ২০ শতক জমির ধান কেটে বাড়ি তুলে দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু তৈয়ব অপি নতুন কুমিল্লা.কম-কে বলেন, কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে স্বেচ্ছায় ব্রাক্ষণপাড়া ও বুড়িচং উপজেলা দুই কৃষকের ৬০ শতক জমির ধান কেটে দিয়েছি। ব্রাক্ষণপাড়া উপজেলার দরিয়ার পাড় গ্রামের কৃষক শুক্কুর আলী ৪০ শতক মাঠের ধান নিয়ে বিপাকে পড়েছিলেন। দরিয়ার পাড় মাঠে বোরো আবাদের মধ্যে কৃষক শুক্কুর আলীর ওই জমিই বাকি ছিল এবং ওই জমিতে পানি জমে গিয়েছিল।

শ্রমিক সংকট ও বাড়তি মজুরির কারণে তিনি ধানগুলো কেটে বাড়ি তুলতে পারেনি। কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা, ব্রাক্ষণপাড়া উপজেলা ও সাহেবাবাদ ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহযোগিতায় কৃষক শুক্কুর আলীর জমির ধান কেটে বাড়িতে তুলে দেওয়া হয়।

এছাড়া বুড়িচং উপজেলার বারেশ্বর গ্রামের আরও এক অসহায় কৃষকের ২০ শতক জমির দান কেটে দেয় ছাত্রলীগ।

কৃষক শুক্কুর মিয়া নতুন কুমিল্লা.কম-কে বলেন, দিনমজুর সঙ্কট ও বাড়তি মজুরির কারণে আমার আবাদি ৪০ শতক জমির ধান কাটতে পারিনি। যার ফলে বৃষ্টি হয়ে ধানের জমিতে হাঁটু পানি জমে যায়। পানি জমে যাওয়ায় শ্রমিকের দাম আরও বেড়ে যায়।

গত ২৫ মে দুপুরে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা আমার জমির ধানগুলো কেটে কেটে বাড়িতে তুলে দেন। আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ছাত্রলীগের জন্য দোয়া করি।

ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের নতুন কুমিল্লা.কম-কে বলেন, আমিও কৃষকের সন্তান। জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় স্বেচ্ছায় কৃষকদের ধান কেটে দেয় হয়েছে। এই কাজের জন্য আমি তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।

আরও পড়ুন