কুমিল্লা
বুধবার,১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
১৮ মাঘ, ১৪২৯ | ৯ রজব, ১৪৪৪
শিরোনাম:
কুমিল্লায় ৭১১ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিলেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন ইসলামী ব্যাংকের ফাস্ট এ্যসিসস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নাজমুলের পদোন্নতি লাভ ‘গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন তাহসিন বাহার কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক নূর উর নবী চৌধুরীর ইন্তেকাল কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ লাকসামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল গোল্ডকাপে পৌরসভা দল বিজয়ী কুসিক নির্বাচন: এক মেয়রপ্রার্থীসহ ১৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে কুমিল্লায় ঢাকা আহছানিয়া মিশনের মেলার আয়োজন কুসিকে মেয়র প্রার্থী রিফাতের নির্বাচন পরিচালনায় ৪১ সদস্যের কমিটি

মুরাদনগরে সিলগালা ভেঙ্গে চালিয়ে যাচ্ছে নিষিদ্ধ পলিথিন ব্যবসা!

কুমিল্লার মুরাদনগরে প্রশাসনের সিলগালা করা তালা ভেঙ্গে দেদারছে নিষিদ্ধ পলিথিন ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন কোম্পানীগঞ্জ বাজারের মাহবুব (৩৮) নামের এক ব্যবস্যায়ী।

জানা যায়, গত ৩০ মে উপজেলার কোম্পানীগঞ্জ বাজারে কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমদাদুল হক তালুকদার অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় বিপুল পরিমানে পলিথিন মজুদ ও বিক্রির অভিযোগে মাহবুব স্টোর নামের দোকানটি সিলগালা করেন। সিলগালা করার কয়েকদিন পর দোকানের মালিক মাহবুব সিলগালা করা তালার কড়া ভেঙ্গে ফেলেন এবং পুনরায় দোকান খুলে নিষিদ্ধ ওই পলিথিন ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন।

প্রশাসনের সিলগালা ভেঙ্গে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়ায় জনমনে ক্ষোভ এবং উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে। এ ক্ষেত্রে প্রশাসনের রহস্যজনক ভূমিকা নিয়েও সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে। ব্যবসায়ী মাহবুব হোসেন জেলার দেবিদ্বার উপজেলার গুনাইঘর গ্রামের মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে।

স্থানীয় সুত্র মতে, কোম্পানীগঞ্জ বাজারে ম্যাজিস্ট্রেট আসার উপস্থিতি টের পেয়ে মাহবুব দোকান ফেলে চলে যায়। এ সময় দোকানে কাউকে না পেয়ে তার দোকনটিকে সিলগালা করেন ম্যাজিস্ট্রেট ইমদাদুল হক তালুকদার।

পলিথিন ব্যবসায়ী মাহবুবের সাথে কথা হলে তিনি নতুন কুমিল্লা.কম-কে বলেন, সিলগালা করেছে তাতে কি হয়েছে ব্যবসা তো আমার বন্ধ থাকবে না। আমি সবাইকে ম্যানেজ করেই ব্যবসা পরিচালনা করছি।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমদাদুল হক তালুকদার নতুন কুমিল্লা.কম-কে বলেন, গত ৩০ মে পরিবেশ আইনে আমরা তার দোকানে অভিযান পরিচালনা করেছি। তার দোকানে আমরা বিপুল পরিমানে পলিথিন মজুদ পেয়েছি।

তবে দোকানে কাউকে পাওয়া যায়নি তখন দোকানটিকে সিলগালা করি। আমি শুনেছি বর্তমানে ওই ব্যবসায়ী দোকান খুলে ব্যবসা পরিচালনা করছেন। আমরা শ্রীঘ্রই ওই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া বলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমদাদুল হক তালুকদার জানান।

আরও পড়ুন