কুমিল্লা
রবিবার,১৬ মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ | ৩ শাওয়াল, ১৪৪২

কুমিল্লায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়েছে দলীয় নেতাকর্মীরা

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে বেলায়েত হোসেন ইকবাল নামে এক ছাত্রলীগ নেতাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। বেলায়েত উপজেলা ছাত্রলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক।

এ ঘটনায় শুক্রবার (৫ জুলাই) রাতে ছাত্রলীগের ৭জন নেতাকর্মীর নাম উলে­খসহ অজ্ঞাত ৮/১০ জনকে আসামী করে মনোহরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ছাত্রলীগ নেতা বেলায়েত হোসেনের পিতা উপজেলার হাটিরপাড় গ্রামের বাসিন্দা জয়নাল আবেদীন।

আহত বেলায়েত হোসেন বর্তমানে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত বেলায়েত হোসেন ইকবাল নতুন কুমিল্লা.কম-কে জানান, উপজেলার হাটিরপাড় এলাকায় স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের একটি ভবন নির্মাণ কাজ চলছে। গত কয়েকদিন আগে সেখান থেকে দেড় টন রড চুরি হয়। পরে বিভিন্ন মাধ্যমে খোঁজখবর নিয়ে ঠিকাদারের লোকজন উপজেলা ছাত্রলীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হাটিরপাড় গ্রামের রুবেল হোসেনের নানীর ঘর থেকে রডগুলো উদ্ধার করে।

পরে বিভিন্ন লোকজন বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করে। আর একাজে রুবেল আমাকে সন্দেহ করে। এ ঘটনার জের ধরে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর মনোহরগঞ্জ বাজারে একটি টেলিকম দোকানে বসে থাকাবস্থায় রুবেল তার লোকজন নিয়ে আমার উপর অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা চালায়।

এ সময় সন্ত্রাসীরা রড, রামদার উল্টো পিঠ, লাঠিসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। সন্ত্রাসী রুবেলের সঙ্গে তার সহযোগী রাকিব, ওমর ফারুক, পারভেজ, মেহেদী হাসান, সহিদুল ইসলাম, ইয়াছিন আরাফাতসহ বেশ কয়েকজন ছিলো। পরে বাজারের লোকজন আমাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করে।

সেখানে থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গত শুক্রবার সকালে আমাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করেণ চিকিৎসকরা। এর আগের সন্ত্রাসী রুবেল দলীয় শৃঙ্খলা নষ্ট করে অসংখ্য অপকর্ম করেছে। কিন্তু রহস্যজনক কারনে তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত রুবেলের সঙ্গে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মনোহরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো.মাহাবুব কবির নতুন কুমিল্লা.কম-কে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ এসেছে। ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন