কুমিল্লা
রবিবার,১৮ আগস্ট, ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ
৩ ভাদ্র, ১৪২৬ | ১৬ জিলহজ্জ, ১৪৪০
Bengali Bengali English English

জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মারা গেছেন

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার (১৪ জুলাই) সকাল পৌনে ৮টার দিকে তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর। এরশাদের ব্যক্তিগত সহকারী ও জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর অবসরপ্রাপ্ত খালেদ আক্তার এবং এরশাদের প্রেসসচিব এবং জাপার সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সুনীল শুভরায় মৃত্যুর বিষয়টি গণমাধ্যম কর্মীদের নিশ্চিত করেছেন।

গত বুধবার (২৬ জুন) শরীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে সিএমএইচ-এ ভর্তি করানো হয়।

চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতির ফুসফুসে পানি জমেছিলো। শ্বাসকষ্ট দেখা দিয়েছিল।

সাবেক এই প্রেসিডেন্টের জন্ম ১৯৩০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি। তিনি রংপুর জেলার দিনহাটায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা।

১৯৮১ সালে ৩০ মে, জিয়াউর রহমান নিহত হওয়ার পর রাজনীতিতে আসেন এরশাদ। ১৯৮২ সালে ২৪ মার্চ রাষ্ট্রপতি আব্দুস সাত্তারের নির্বাচিত সরকারকে হটিয়ে রাষ্ট্রক্ষমতায় আসেন এরশাদ। ১৯৮৩ সালের ১১ ডিসেম্বর তিনি প্রধান সামরিক প্রশাসক হিসেবে দেশ শাসন শুরু করেন।

১৯৮৬ সালে তিনি জাতীয় পার্টি প্রতিষ্ঠা করেন এবং দলের মনোনয়ন নিয়ে ১৯৮৬ সালে ৫ বছরের জন্য দেশের রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন।

তবে গণআন্দোলনের মুখে ১৯৯০ সালের ৬ ডিসেম্বর ক্ষমতা ছাড়তে বাধ্য হন এ সামরিক শাসক এরশাদ। এরপর দীর্ঘদিন জেলও খাটতে হয় তাকে।

২০০১ সালের অক্টোবরে অনুষ্ঠিত অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এরশাদের জাতীয় পার্টি ১৪টি আসনে জয়ী হয়। এরপর ২০০৬ সালে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪-দলীয় জোটের সঙ্গে মহাজোট গঠন করেন তিনি।

২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাঁর দল ২৭টি আসনে বিজয়ী হয়। এরপর দশম ও সবশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও তিনি সাংসদ হন। তিনি চলতি জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের নেতা ছিলেন।

আরও পড়ুন