কুমিল্লা
শনিবার,৬ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২১ ফাল্গুন, ১৪২৭ | ২১ রজব, ১৪৪২

বাইউষ্ট কুমিল্লা আন্তর্জাতিক মানের এক অনন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

দীর্ঘ ৪ বছর পর কুমিল্লায় প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি (বাইউষ্ট) এর কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপ্রতি কর্তৃক বাইউষ্ট এর উপাচার্য পদে নিয়োগদানে বাইউষ্ট এর সকল স্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী আনন্দিত উৎফুল্লিত। এতে বাইউষ্ট কুমিল্লার শিক্ষা কার্যক্রমে আরো একধাপ এগিয়ে গেল।

কুমিল্লার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমন্ডিত লালমাই পাহাড়ের উত্তরে ময়নামতি সেনানিবাসের একাংশে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি (বাইউষ্ট) বর্তমান তথ্য প্রযুক্তিভিত্তিক জ্ঞান বিজ্ঞানের আধুনিকতম শিক্ষার এক অন্যতম উচ্চতর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসাবে সর্বজন স্বীকৃত। সেনাবাহিনীর বোর্ড অব ট্রাষ্টির পরিচালিত দেশের বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে কুমিল্লা বাইউষ্ট অন্যতম।

প্রাচীন সভ্যতার ধারক বাহক শিক্ষা সংস্কৃতির পাদপীঠ পথিকৃত কুমিল্লার ঐতিহাসিক শালবন বিহারের অদূরেই ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে শহর থেকে ৪ কিলোমিটার পশ্চিমে প্রতিষ্ঠিত বাইউষ্ট এর যাত্রা শুরু হয় ২০১৫ সালের ১৪ই ফেব্রæয়ারী।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বোর্ড অব ট্রাষ্টির মাধ্যমে পরিচালিত বাইউষ্ট প্রতিষ্ঠার পর থেকে শিক্ষার মান নিশ্চিত করণে নিয়মিত পাঠ্যক্রমের সাথে গুণগত শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের গবেষণা কর্ম ও মানবিক মূল্যবোধের জ্ঞান চর্চায় ও দক্ষতা অর্জনের পাঠ্যক্রমে সফলতা বয়ে আনছে।

শিক্ষকদের আন্তর্জাতিক মানের উচ্চতর প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের যোগ্যতর করে গড়ে তোলার প্রয়াস অব্যাহত রয়েছে। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বর্তমানে ৬টি বিভাগে ৩৯টি ব্যাচে ১ হাজার ১ শত ৮৩ জন ছাত্র-ছাত্রী অধ্যায়নরত রয়েছে।

২০১০ সালের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের আওতায় কোলাহল মুক্ত ও পরিচ্ছন্ন মনোরম পরিবেশে প্রতিষ্ঠিত বাইউষ্ট সুষ্ঠু ভাবে পরিচালিত হওয়ায় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার গুণগত মান অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬টি বিভাগের মধ্যে বিজ্ঞান, বাণিজ্য ও মানবিকে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেক্ট্রটিক্যাল ইলেকট্রনিক এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ইংরেজি, বিবিএ, এমবিএ ও এলএলবিতে পৃথক ফ্যাকাল্টির মাধ্যমে বাস্তবসম্মত উচ্চতর পাঠ্যক্রমে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন