কুমিল্লা
শনিবার,৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ
২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ | ৯ রবিউস-সানি, ১৪৪১
Bengali Bengali English English

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে প্রতিদিন আসছে ১৭ ডেঙ্গু রোগী

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে ১৭ জনেরও বেশি ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হচ্ছে। কুমেকের ভর্তি রেজিস্ট্রার খাতায় গত ৬ দিনের পাওয়া তথ্যে এ চিত্র দেখা গেছে। সব মিলিয়ে জুলাইয়ের ২২ তারিখ থেকে শনিবার (৩ আগস্ট) সকাল পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত ১৩২ জন রোগী চিকিৎসা নিতে আসে। এর মধ্যে রোববার (২৮ জুলাই) থেকে শনিবার পর্যন্ত ৬ দিনে ভর্তি হয়েছে ১০৪ জন। গত ২৭ জুলাই পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২৭ জন।

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্র মতে, হাসপাতালটিতে বর্তমানে ৭৮ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। আর ৫৪ জন রোগী বিভিন্ন সময়ে চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরেছে।

এছাড়াও তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন এবং হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫ জন ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসা নেয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে চিকিৎসাধীন সবাই ঢাকায় আক্রান্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন: >>> কুমিল্লায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ১শ’ ছাড়লো

এদিকে কুমিল্লায় ভয়াবহভাবে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে নগরবাসীসহ জেলায় বসবাসকারীরা।

কুমেকের রেকর্ড সূত্রে জানা যায়, ২৩ জুলাই পর্যন্ত কুমিল্লায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ছিল মাত্র ৪ জন। এরপর ২৭ জুলাই এর সংখ্যা দাঁড়ায় ২৭ জনে। মূলত ২৮ জুলাই থেকেই কুমেক হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীর চাপ বাড়তে থাকে।

ক্রমেই বাড়তে থাকা রোগীর সংখ্যা ৩১ জুলাই এসে দাঁড়ায় ৯৪ জনে। আর চলতি মসের প্রথম দুই দিনসহ সব মিলিয়ে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন ১৩২ জন ডেঙ্গু রোগী। আর হোমনা ও তিতাস উপজেলা মিলিয়ে বর্তমানে এর সংখ্যা ১৪০ জন।

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. স্বপন কুমার অধিকারী নতুন কুমিল্লা.কমকে জানান, গত কয়েকদিনে জ্বরে আক্রান্ত হয়ে প্রায় ৩০০ জন কুমেক হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগের পরীক্ষা করেছে। এদের মধ্যে ১৫ জনকে শনাক্ত করেছে হাসপাতালের প্যাথলজি বিভাগ। বাকি রোগীরা প্রাইভেট ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ডেঙ্গুর বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে চিকিৎসা নিতে এসেছে।

ডেঙ্গু পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে যে পরিমাণ কিট রয়েছে তা দিয়ে শনিবার (৩ আগস্ট) পর্যন্ত কার্যক্রম চালানো যাবে। রোববার (৪ আগস্ট) আবার নতুন করে কিট সংগ্রহ করতে হবে।

আরও পড়ুন: >>> কুমিল্লায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত যুবকের মৃত্যু

এদিকে কুমিল্লায় ডেঙ্গু রোগের প্রকোপ বৃদ্ধির খবরে অনেকটা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে নগরবাসীসহ জেলার বাসিন্দারা।

তবে এ বিষয়ে কুমিল্লার জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীর নতুন কুমিল্লা.কমকে জানান, ডেঙ্গু প্রতিরোধে কুমিল্লায় ব্যাপক সচেতনতা কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের উদ্যোগে ডেঙ্গুর ভয়াবহতা প্রতিরোধে নগরীতে সমন্বিতভাবে কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।

এছাড়াও জনগণকে সচেতন করতে লিফলেট বিতরণের পাশাপাশি নগরী ও নগরীর বাইরের বিভিন্ন স্কুল-কলেজসহ গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানগুলোতেও আলাদাভাবে নানা কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। ইতোমধ্যে কুমিল্লার ১৭টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডেঙ্গু বিষয়ে সচেতনতামূলক ‘হেল্প ডেস্ক’ চালু করা হয়েছে। কুমিল্লায় ডেঙ্গুর প্রকোপ নির্মূলে সরকারি বেসরকারি সংগঠনসহ সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন