কুমিল্লা
সোমবার,২১ অক্টোবর, ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ
৬ কার্তিক, ১৪২৬ | ২০ সফর, ১৪৪১
Bengali Bengali English English

ক্যান্সারকে জয় করেও শেষ রক্ষা হলোনা এএসআই আকতারের

বছর খানেক আগে মরণব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আকতার হোসেন। ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে সুস্থ হয়ে কয়েকমাস আগেই কর্মস্থলে ফিরেছিলেন তিনি।

কিন্তু মৃত্যু পিছু ছাড়েনি এএসআই আক্তারের। ক্যান্সার জয়ের পর সড়ক দুর্ঘটনায় জীবন প্রদীপ নিভে গেলো এই পুলিশ কর্মকর্তার।

সোমবার (২ সেপ্টেম্বর) কর্মস্থলে দায়িত্ব পালনকালে ঘাতক কাভার্ডভ্যান চাপায় প্রাণ যায় এএসআই আকতারের। মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএএসআই) কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার আমড়া তলী ইউনিয়নের ছোটবাটুয়া গ্রামের দুলা মিয়ার ছেলে।

ভোর ৫টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামের বাবুর্চি বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় এএসআই আকতারসহ তিনজন নিহত হন, আহত হয়েছেন আরও ৪ জন।

সূত্র মতে, বছর খানেক আগে মরণব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন আকতার। ওই সময় যথাযথ চিকিৎসা নেওয়ার পর পুনরায় কর্মস্থলে যোগ দেন মিয়াবাজার হাইওয়ে পুলিশের এ সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই)।

পুলিশ জানায়, বাবুর্চি বাজার এলাকায় চট্টগ্রামমুখী একটি কাভার্ডভ্যান (ঢাকা মেট্রো-ট-১৮-৮৩৮৬) বিকল হয়ে সড়কের পাশে পড়ে ছিল। খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশের এএসআই আকতারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম রেকারসহ ঘটনাস্থলে হাজির হন।

এরপর বিকল হয়ে যাওয়া কাভার্ডভ্যানটি সরাতে রেকারের মাধ্যমে কাজ শুরু করেন তারা। এ সময় পেছন থেকে দ্রুতগামী একটি কাভার্ডভ্যান সড়কের পাশে পড়ে থাকা ওই কাভার্ডভ্যানটিকে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়।

এ সময় রেকারের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা এএসআই আকতারসহ ৭ জন চাপা পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই এএসআই আকতার ও কাভার্ড ভ্যানের হেলপার সুমন নিহত হন।

আরও পড়ুন