কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,১৭ অক্টোবর, ২০১৯ খ্রিস্টাব্দ
২ কার্তিক, ১৪২৬ | ১৭ সফর, ১৪৪১
Bengali Bengali English English
শিরোনাম:
নিত্য যানজটে অতিষ্ঠ লাকসাম শহরের বাসিন্দারা সদর দক্ষিণে পরিবার কল্যাণ সহকারী সমিতির মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা নাঙ্গলকোটে পরিবার কল্যাণ সহকারীদের মানববন্ধন কুবি’র হলে গাঁজা সেবনরত অবস্থায় ছাত্রলীগের ২ নেতাসহ আটক তিন ডাকসুর সাধারণ সম্পাদক রাব্বানীর ভর্তিতে অনিয়ম: তদন্ত চাইবে অনুষদ ‘কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় রাজনীতি ও ধূমপান মুক্ত’ অঙ্গীকারনামায় সীমাবদ্ধ মুরাদনগরে বিভিন্ন পয়েন্টে কোরআনের বাণী সংবলিত ফলক স্থাপন ব্রাহ্মণপাড়ায় ড্রেজার দিয়ে মাটি উত্তলন, হুমকীর মুখে সরকারি খাল লাকসামে কমিউনিটি ক্লিনিকের আসবাবপত্র আত্মসাতের অভিযোগ বাবাকে বাঁচাতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর আকুতি

কুমেক হাসপাতালের মেডিসিন স্কয়ারে জরিমানা

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভিতর একমাত্র সরকার অনুমোদিত ওষধ দোকান মেডিসিন স্কয়ারে জরিমানা করেছে ওষধ প্রশাসন।

সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট এ কে এম ফয়সাল ও জেলা ওষধ তত্ত্বাবধারক শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অনুমোদনহীন ও সরকারি ওষধ সংরক্ষণের কারণে মেসার্স মেডিসিন স্কয়ারকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানের খবর পেয়ে মেডিল্যাব ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার, কুচাইতলী সিটিস্ক্যান, হেল্থভিউ সিটিস্ক্যান, চৌদ্দগ্রাম মেডিকেল হল, তাহের, ময়নামতি, মর্ডাণ মেডিসিন, বিসমিল্লাহ, কাজী ড্রাগ, অাল মদিনা, শাহরাস্তি, সাবা মেডিকেলসহ বেশ কয়েকটি ওষধ দোকান বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে ওষধ তত্ত্বাবধারক শফিকুল ইসলাম নতুন কুমিল্লা.কমকে জানান, জনস্বার্থে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। অভিযান চলাকালিন সময় যে সকল প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল তাদের বিরুদ্ধে অাইনানুব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

হাসপাতালের সামনের ফার্মেসীগুলোতে অহরহ সরকারি ওষধ পাওয়ার বিষয়ে কুমেক হাসপাতাল পরিচালক ডা. স্বপন কুমার অধিকারী নতুন কুমিল্লা.কমকে বলেন, ফার্মেসীর মালিকরাই ভালো জানে তারা কোথায় থেকে সরকারি ওষধ কিভাবে সংগ্রহ করেন।

হাসপাতালের ওষধ বাহিরে বিক্রি হওয়ার পথ বহু অাগেই বন্ধ হয়ে গিয়েছে বলে তিনি দাবী করেন।

আরও পড়ুন