কুমিল্লা
সোমবার,১ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
১৬ ফাল্গুন, ১৪২৭ | ১৬ রজব, ১৪৪২

না ফেরার দেশে চৌদ্দগ্রামের একমাত্র বীরঙ্গনা আফিয়া

মহান মুক্তিযুদ্ধে শত প্রাণ, শত ইজ্জত বাঁচানো মহিয়সী নারী কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার একমাত্র বীরঙ্গনা আফিয়া খাতুন ওরফে খঞ্জনী বেগম (৮০) আর নেই।

সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টায় কুমিল্লা শহরের বাগিচাগাঁওয়ের বাসায় তিনি ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহে ওয়াইন্না ইলাইহে রাজিউন। আফিয়া খাতুন উপজেলার জগন্নাথদিঘী ইউনিয়নের কিং সোনাপুর গ্রামের প্রয়াত রুহুল আমিনের স্ত্রী। মৃত্যুকালে তিনি একমাত্র কন্যা রোকসানাসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান।

মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় কুমিল্লা বাগিচাগাঁওস্থ বাসা সংলগ্ন মসজিদ প্রাঙ্গণে প্রথম জানাযা, দুপুর ২টায় স্বামীর বাড়ি কিং সোনাপুর গ্রামে রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রদর্শন ও দ্বিতীয় নামাজে জানাযা শেষে স্বামীর কবরের পাশে তার লাশ দাফন করা হয়েছে।

এদিকে বীরঙ্গনা আফিয়া খাতুন খঞ্জনীর মৃত্যুতে উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য, পাকিস্থানি হানাদার বাহিনী দ্বারা নির্যাতনের শিকার বীরঙ্গনা আফিয়া খাতুন খঞ্জনী ১৯৩৯ সালে ফেনী জেলার ঐহিত্যবাহী বরইয়া চৌধুরী বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম হাসমত আলী চৌধুরী ও মাতা মাসুদা খাতুন।

নানা ঘাত-প্রতিঘাত আর চড়াই উৎরাই পেড়িয়ে বিগত ২০১৮ সালের ১৭ জুলাই বীরঙ্গনা স্বীকৃতি পান আফিয়া খাতুন খঞ্জনী।

আরও পড়ুন