কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
১৭ ফাল্গুন, ১৪২৭ | ১৭ রজব, ১৪৪২

দক্ষিণ আফ্রিকায় পৃথক ঘটনায় ৩ বাংলাদেশী নিহত

দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কর্মচারীর আঘাত সহ পৃথক ঘটনায় ৩ জন নিহত হয়েছে। এ সব ঘটনায় আহত হয়েছে ১জন।

সূত্রমতে, দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গ প্রভিন্সের এলডোরাডু এক্সটেনশন ২ এলাকায় মোঃ আবুল হাসনাত (৩৫) নামে এক বাংলাদেশী ব্যবসায়ী নিজ দোকানের কর্মচারীর ফায়ার এক্সটেনশন বোতলের আঘাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার ২৫ জানুয়ারী রাত আনুমানিক সাড়ে নটার সময় নিহত হয়েছেন। নিহত আবুল হাসনাতের দেশের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ।

এ দিকে নিহতের ভাই জানিয়েছেন , গত রবিবার ১৯ জানুয়ারী সকাল বেলায় দোকান খোলার পর দোকানের কর্মরত দক্ষিণ আফ্রিকার পাশ্ববর্তী দেশ মালয়ের কর্মচারী ফায়ার এক্সটেনশন বোতল দিয়ে আঘাত করলে নিহত আবুল হাসনাত সাথে সাথে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে এবং ঐ সময় সাথে সাথে উক্ত কর্মচারী দোকানের নগদ অর্থ সহ প্রয়োজনীয় মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে আবুল হাসনাতের ভাই দ্রুত স্থানীয়দের সহযোগিতায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে দীর্ঘ এক সপ্তাহ জোহানেসবার্গের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এ দিকে, দক্ষিণ আফ্রিকা বসবাসরত প্রবাসী উত্তম বণিক নামের এক বাংলাদেশী গত ২৫ জানুয়ারী ব্রেনস্টোক করে জোহানেসবার্গ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১২টার পরলোকগমন করেছেন। উত্তম বণিকের দেশের বাড়ি সিলেট বিভাগের হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট এলাকায় ।

উল্লেখ্য,উত্তম বণিক বেশ কয়েক বছর থেকে জোহানেসবার্গের ফোর্ডসবার্গে বাংলাদেশী পণ্য বিক্রেতা দেশি বাজার নামক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন। বাংলাদেশ বুড্ডিস্ট কমিউনিটির সভাপতি শৈবাল বড়ুয়া জানিয়েছে গত ২৬ জানুয়ারী রবিবার বণিক হটাৎ স্ট্রোক করলে প্রথমে তাকে দ্রুত জোহানেসবার্গের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতেই তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। উত্তম বণিকের পরিবারের সম্মতিতে দক্ষিণ আফ্রিকাতে তার শেষকৃত্য আজ ২৮ জানুয়ারী দুপুর ২টায় জোহানেসবার্গের ব্রিক্সটনের শ্মশানে অনুষ্ঠিত হবে।

একই দিনে গতকাল বিকালে ফ্রি স্টেটে ও মোহাম্মদ আলী নামে আরেক বাংলাদেশি প্রবাসী হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এই নিয়ে বছরের শুরুতেই চলতি মাসে ৬ জন প্রবাসী বাংলাদেশী রেমিটেন্স যোদ্ধা কে আমরা হারিয়েছি । এই মৃত্যুর সংবাদ গুলো দেশে ছড়িয়ে পড়লে পরিবার-পরিজনের মধ্যে শোকের ছায়া বিরাজ করছে।

২৭ জানুয়ারী সোমবার দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গের সাউথ গেইট এলাকায় স্থানীয় কতিপয় সন্ত্রাসীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন সোহাগ নামের এক বাংলাদেশী ব্যবসায়ী।

ঘটনার বিবরণে জানা যায় যে, বেশ কয়েকদিন থেকে স্থানীয় স্থানীয় সন্ত্রাসীরা বাংলাদেশী এই ব্যবসায়ীর দোকান থেকে জোরপূর্বক অর্থ না দিয়ে মাল নিয়ে চলে যেতেন। মালের টাকা চাইলে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা সোহাগকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে আসছিল। একপর্যায়ে গত রবিবার সোহাগের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে জোরপূর্বক কিছু মালামাল নিয়ে যেতে চাইলে সোহাগের বাধার মুখে পালিয়ে যায় স্থানীয় ঐ সন্ত্রাসীরা। পরক্ষণে একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা তার বেশ কিছু সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে অতর্কিত ভাবে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মারাত্মকভাবে আহত হন বাংলাদেশী ব্যবসায়ী সোহাগ।

সোহাগের দেশের বাড়ি নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ী উপজেলায়। বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকা একের পর এক লুটপাট অগ্নিসংযোগ ও মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রবাসী ব্যবসায়ীদের মাঝে বিরাট আতঙ্কের সৃষ্টি দেখা দিয়েছে। কেউ কেউ তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ছেড়ে বা গুটিয়ে বিক্রি করে অন্য দেশে পাড়ি জমানোর চেষ্টা করছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়।

আরও পড়ুন