কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
১২ ফাল্গুন, ১৪২৭ | ১২ রজব, ১৪৪২

চান্দিনা উপজেলায় ‘রেড জোন’ ঘোষণা

কুমিল্লার চান্দিনায় উপজেলা সদরের মধ্যেই ৯জন করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হওয়ায় উপজেলাকে ‘রেড জোন’ হিসেবে ঘোষণা করেছে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়।

এছাড়া উপজেলা সদরের ‘ধানসিঁড়ি আ/এ এবং মহারং এলাকা কে ‘হটস্পট’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে উপজেলা প্রশাসন।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া বেশির ভাগই উপজেলা সদরের বাসিন্দা হওয়ায় রবিবার (৩ মে) পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কঠোর অবস্থানে মাঠে নেমেছে উপজেলা প্রশাসন।


কুমিল্লা ১৭ উপজেলার করোনাভাইরাস আপডেট দেখতে এখানে ক্লিক করুন


খোঁজ নিয়ে জানা যায়- শনিবার উপজেলা প্রশাসনের এক কর্মচারীর শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় এবং উপজেলা সদরের মহারং এলাকায় করোনা ভাইরাসে এক ব্যক্তির মৃত্যুর ঘটনায় আরও কঠোর অবস্থানে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে- শনিবার থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাথে উপজেলা সদরের সকল সংযোগ সড়ক বন্ধ করা হয়েছে। বাকি ২টি সড়কে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

এছাড়া রবিবার (৩ মে) সকাল থেকে পুলিশ-সেনা বাহিনীকে সাথে নিয়ে বাজার এলাকায় প্রবেশ করে মাইকিং করে সকল দোকান-পাট এবং সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেন।

এছাড়া সরকারি আদেশ অমান্য করার অপরাধে ৩টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সাড়ে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত। উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাঈমা ইসলাম ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের দায়িত্ব পালন করেন।

হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) স্নেহাশীষ দাশ জানান, কুমিল্লার চান্দিনায় ৯জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত এবং একজনের মৃত্যু ঘটে।

এছাড়া করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু ঘটে কলেজ ছাত্রীসহ ২জনের। যারা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের প্রত্যেকের বাড়ি উপজেলা সদরে। এর মধ্যে ২টি স্থানে ৬জন আক্রান্ত হওয়ায় ঐ ২টি স্থানেকে ‘হটস্পট’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত চান্দিনা উপজেলা সদরের সকল দোকান-পাট বন্ধসহ যান চলাচলও বন্ধ থাকবে। তবে শুধুমাত্র ওষুধ দোকান ও জরুরী সেবা ওই আদেশের বাহিরে থাকবে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর টহল অব্যাহত থাকবে

আরও পড়ুন