কুমিল্লা
শনিবার,৪ জুলাই, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
২০ আষাঢ়, ১৪২৭ | ১২ জিলক্বদ, ১৪৪১
শিরোনাম:
করোনায় কুমিল্লার ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু সংখ্যালঘু মুক্তিযোদ্ধা রনজিৎকে জানে মারার হুমকি দিয়ে বিএনপি নেতার হামলা কুমিল্লায় নতুন করে ৭৯ জনের করোনা শনাক্ত, আক্রান্ত বেড়ে ২৬৮১ মুরাদনগরে সমকাল প্রতিনিধি বেলাল উদ্দিন করোনায় আক্রান্ত কুমিল্লায় অর্ধশত মসজিদের শতাধিক ব্যাটারি চুরি! কুমিল্লায় ২৪ ঘন্টায় ১৩১ জনের করোনা সনাক্ত, ৭ জনের মৃত্যু মনোহরগঞ্জে সাংবাদিককে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা, ধরাছোঁয়ার বাইরে আসামীরা ফটোল্যাব ব্যবহারকারীর তথ্য যাচ্ছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থায়! কুমিল্লায় একদিনে রেকর্ড ১৬১ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৩ অবশেষে মিললো জীবন রক্ষাকারী প্রথম ওষুধ

হোমনায় করোনায় আক্রান্ত শিক্ষকের গৃহকর্মীও করোনায় আক্রান্ত

ফাইল ছবি

হোমনা উপজেলার দুলালপুর দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক ও হোমনা সরকারি হাসপাতালের নার্স শান্তা আক্তারের স্বামী মো. তাজুল ইসলাম (৩৮) করোনায় আক্রান্ত হওয়ার দু’দিন পর তার গৃহকর্মীও করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তার নাম সাহেরা বানু (১৭)।

তার বাড়ি বি-বাড়িয়া জেলায়। আজ রবিবার তার করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবদুস সালাম সিকদার জানান, গত ১৪ মে শিক্ষক তাজুল ইসলামের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে।


কুমিল্লা ১৭ উপজেলার করোনাভাইরাস আপডেট দেখতে এখানে ক্লিক করুন


এরপর ১৫ মে তার স্ত্রী হাসপাতালের নার্স শান্তা আক্তার, দুই সন্তান, গৃহকর্মীসহ হাসপাতালের ২৭ জন কর্মীর নমুনা সংগ্রহ করে কুমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। আজ রবিবার এগুলোর রিপোর্ট আসে। এর মধ্যে গৃহকর্মীর সাহেরা বানুর করোনা পজেটিভ আর অন্যদের রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

করোনা পজেটিভ শিক্ষক তাজুল ইসলাম ও গৃহকর্মী সাহেরা বানু বর্তমানে হোমনা সরকারি হাসপাতালের কোয়ার্টারে আছেন। করোনা পজেটিভ দু’জনকে কোয়ার্টারের আলাদা দু’টি রুমে রেখে চিকিৎসা দেয়া হবে। আর তার পরিবারের সদস্যদের অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

প্রকাশ, এ নিয়ে হোমনায় মোট করোনা রোগী ৪ জন। এর মধ্যে তারা দু’জন হাসপাতাল কোয়ার্টারে আর ব্র্যাক কর্মী মাসুদ রানা ব্র্যাক অফিসের একটি আলাদা কক্ষে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এছাড়া হোমনার প্রথম করোনা রোগী উপজেলার মঙ্গলকান্দি গ্রামের ফাহিমা সুস্থ্য হয়েছেন। করোনায় আক্রান্তরা হাসপাতালের যে কোয়ার্টারে থাকেন সে ভবনটি লকডাউন করে দিয়েছে প্রশাসন।

আরও পড়ুন