কুমিল্লা
বৃহস্পতিবার,১ অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৬ আশ্বিন, ১৪২৭ | ১৩ সফর, ১৪৪২

কুমিল্লায় প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা, যুবলীগ নেতা বহিষ্কার

বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা আলমগীর হোসেন

কুমিল্লা মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. আলমগীর হোসেনকে যুবলীগের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনি মহানগরীর কোটবাড়ী রোডের চাঙ্গেনী এলাকায় জুমার নামাজ শেষে স্থানীয় মুসল্লিদের সামনে আক্তার হোসেন (৬০) নামে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি।

শুক্রবার (২৪ জুলাই) যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আলমগীর হোসেনকে বহিষ্কারের তথ্য জানানো হয়।

https://www.facebook.com/adsfarmbd/

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশের নির্দেশে সংগঠনবিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে কুমিল্লা মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আলমগীর হোসেনকে সংগঠনের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, নগরীর ২৩ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আলালের একটি ঘুড়ি উৎসবে কাউন্সিলর আলমগীর হোসেনকে দাওয়াত না দেয়ায় ও এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিনের বিরোধের জের ধরে গত ১০ জুলাই জুমার নামাজ শেষে তার বড় ভাই আক্তার হোসেনকে কাউন্সিলর আলমগীরের নেতৃত্বে লোহার রড ও পাইপ দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রেখা আক্তার বাদী হয়ে কাউন্সিলর আলমগীর হোসেনসহ ১০ জনকে আসামি করে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় মামলা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ আলমগীরের তিন ভাইকে আটক করলেও অন্যরা এখনও পলাতক রয়েছে।

আরও পড়ুন