কুমিল্লা
সোমবার,২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১৩ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ১৫ শাবান, ১৪৪৫
শিরোনাম:
অভি’কে সিইও হিসেবে অনুমোদন দিলো আইডিআরএ কুমিল্লায় ৭১১ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিলেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন ইসলামী ব্যাংকের ফাস্ট এ্যসিসস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নাজমুলের পদোন্নতি লাভ ‘গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন তাহসিন বাহার কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক নূর উর নবী চৌধুরীর ইন্তেকাল কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ লাকসামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল গোল্ডকাপে পৌরসভা দল বিজয়ী কুসিক নির্বাচন: এক মেয়রপ্রার্থীসহ ১৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে কুমিল্লায় ঢাকা আহছানিয়া মিশনের মেলার আয়োজন

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে ফাঁকা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার অংশ

সারাদেশে সাত দিনব্যাপী সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়া দেশব্যাপী এ লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। কঠোর বিধিনিষেধের আজ দ্বিতীয় দিনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক কুমিল্লার অংশ ফাঁকা। জরুরি সেবার আওতাভুক্ত কিছু ব্যক্তিগত গাড়ি ছাড়া তেমন কোন পরিবহন চলাচল করতে দেখা যায়নি। অন্যান্য দিনের মতো ব্যস্ততম এ সড়কে নেই ঘরমুখো মানুষ।

এদিকে সকাল থেকেই বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে মহাসড়কে অবস্থান নিয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। কুমিল্লার ১০৫ কিলোমিটার অংশে দাউদকান্দি, চান্দিনা, আলেখাচর বিশ্বরোড ও চৌদ্দগ্রাম এলাকায় বসানো হয়েছে চেক পোস্ট।

শুক্রবার (২ জুলাই) সকাল ১০টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এমন চিত্র দেখা গেছে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা সদর দক্ষিণের পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড, কোটবাড়ি বিশ্বরোড ও ক্যান্টনমেন্ট এলাকা ঘুরে দেখা যায়, পণ্যবাহী পরিবহনের পাশাপাশি চলছে গুটি কয়েক রিকশা ও ইজিবাইক চলাচল করতে। কেউ নিয়ম না মানলেই তাদের শাস্তির আওতায় আনতে মহাসড়কে রয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

এ বিষয়ে হাইওয়ে পুলিশ কুমিল্লা রিজিয়নের পুলিশ সুপার মুহাম্মদ রহমত উল্লাহ নতুন কুমিল্লাকে জানান, বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে সকাল থেকে সড়কে পুলিশ তৎপর রয়েছে। মহাসড়কের কুমিল্লা ১০৫ কিলোমিটার অংশে ৪টি চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। অতি প্রয়োজন ছাড়া প্রাইভেটকার বা মাইক্রোবাস আটকে দেয়া হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক মো. কামরুল হাসান নতুন কুমিল্লাকে বলেন, কুমিল্লায় লকডাউন বাস্তবায়নে ১৭ উপজেলায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে ৪৫টি ভ্রাম্যমাণ আদালত এবং সেনাবাহিনীর, বিজিবি, পুলিশ ও আনসারবাহিনীসহ মোট ৬৭টি টিম কাজ করছে। বিনা প্রয়োজনে কেউ বের হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন