কুমিল্লা
মঙ্গলবার,২৯ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ | ৪ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪
শিরোনাম:
কুমিল্লায় ৭১১ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিলেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন ইসলামী ব্যাংকের ফাস্ট এ্যসিসস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নাজমুলের পদোন্নতি লাভ ‘গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন তাহসিন বাহার কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক নূর উর নবী চৌধুরীর ইন্তেকাল কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ লাকসামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল গোল্ডকাপে পৌরসভা দল বিজয়ী কুসিক নির্বাচন: এক মেয়রপ্রার্থীসহ ১৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে কুমিল্লায় ঢাকা আহছানিয়া মিশনের মেলার আয়োজন কুসিকে মেয়র প্রার্থী রিফাতের নির্বাচন পরিচালনায় ৪১ সদস্যের কমিটি

মেয়র পদে মনোনয়ন জমা দিলেন বিএনপির সাক্কু-কায়সার

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত না থাকলেও মনোনয়ন দাখিলের শেষদিন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে দুইজন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৭ মে) রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরীর কাছে তারা মনোনয়নপত্র জনা দেন।

তাদের মধ্যে একজন হলে, কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের সদস্য বিদায় মেয়র ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনিরুল হক সাক্কু এবং কুমিল্লা মহানগর স্বেচ্ছাসেবকদলের সভাপতি নিজাম উদ্দিন কায়সার।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে জমা শেষে মনিরুল হক সাক্কুর ভাই অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু সাংবাদিকদের বলেন, ‘দুই বারের মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর পক্ষে আমরা মনোনয়ন দাখিল করে গেলাম। ওনি এক নির্বাচিত জনপ্রিয় মেয়র। গত ১০ বছরে উন্নয়ন মুলক বিভিন্ন কাজ করেছে। উন্নয়নের গতিধারা অব্যাহত রাখতে মহানগর বাসী এক জোট হয়েছে সাক্কুকে আবারও নির্বাচিত করার জন্য।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নিজাম উদ্দিন কায়সার নিজেই রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে এবং তাদের চাপের মুখে তিনি সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

মেয়র সাক্কুর প্রতিপক্ষ কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী। বর্তমান মেয়রকে আমি আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবেই দেখি।

দলের সিদ্ধান্ত অমান্যের বিষয়ে তিনি ব্যাখা করে বলেন, দল আমাকে নির্বাচনে অংশ নিতে বলেনি। তবে আমি এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করলে একটি নিশ্চিত চেয়ার অন্য দলের দখলে চল যাবে, তাই নির্বাচন করছি। এতে করে দল আমার বিরুদ্ধে যে কোনও সিদ্ধান্ত নেয় আমি তা মেনে নেব।

তফসিল অনুযায়ী, কুমিল্লা সিটি নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ১৭ মে। মনোনয়নপত্র বাছাই ১৯ মে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৬ মে। প্রতীক বরাদ্দ ২৭ মে। নির্বাচন আগামী ১৫ জুন।

প্রসঙ্গত- ২০১৭ সালে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত বর্তমান মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর কাছে পরাজিত হন সীমা। সাক্কু ধানের শীষ প্রতীকে ৬৮ হাজার ৯৪৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। নৌকা প্রতীক নিয়ে আঞ্জুম সুলতানা সীমা পান ৫৭ হাজার ৮৬৩ ভোট।

২০১২ সালের প্রথম সিটি নির্বাচনে বিএনপি নেতা মনিরুল হক সাক্কু ৬৫ হাজার ৫৭৭ ভোট পেয়ে জয় লাভ করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা প্রয়াত অধ্যক্ষ আফজল খান অ্যাডভোকেট পান ৩৬ হাজার ৪৭১ ভোট।

আরও পড়ুন